কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


রেকর্ড ২৭ বার কুমিল্লার সেরা সার্কেল অফিসার কিশোরগঞ্জের কৃতী সন্তান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইমন


 বিশেষ প্রতিনিধি | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার, ১২:৫৭ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জের কৃতী সন্তান কুমিল্লা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন পিপিএম কর্মক্ষেত্রে কর্তব্যনিষ্ঠা আর দক্ষতার পরিচয় দিয়ে আবারো কুমিল্লা জেলা পুলিশের সেরা সার্কেল অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত কুমিল্লা জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভায় ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসের সার্বিক কার্যক্রমের ভিত্তিতে তাঁকে কুমিল্লা জেলা পুলিশের সেরা সার্কেল অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত করেছেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম।

এ নিয়ে রেকর্ড ২৭ বার কুমিল্লা জেলা পুলিশের সেরা সার্কেল অফিসার নির্বাচিত হলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন পিপিএম।

চৌকস এই পুলিশ কর্মকর্তা কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও দক্ষতার মাধ্যমে জনগণের সেবকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে প্রশংসিত হচ্ছেন। পাশাপাশি পুলিশিং কার্যক্রমের সার্বিক মূল্যায়নে তিনি টানা দুইবার এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছেন।

২০১৮ এবং ২০১৯ সালে পরপর দুইবার কুমিল্লার বর্ষসেরা সার্কেল অফিসার হিসেবে এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন তিনি।

এছাড়া কুমিল্লা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন পিপিএম একাধিকবার চট্টগ্রাম রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন।

কুমিল্লা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন পিপিএম করিমগঞ্জ উপজেলার স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী এবং উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন অর রশিদের ভাতিজা এবং করিমগঞ্জের সর্বজন শ্রদ্ধেয় রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইকবালের ছেলে।

তানভীর সালেহীন ইমন ২৮তম বিসিএস পরীক্ষায় পুলিশ ক্যাডারে মেধা তালিকায় ২৫তম স্থান দখল করে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। চৌকস এই পুলিশ কর্মকর্তা কুমিল্লা সদর সার্কেলে ২০১৬ সালের শেষ দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন।

বাংলাদেশে পুলিশের সৎ, নির্ভীক, দক্ষ ও জনপ্রিয় তরুণ অফিসার তানভীর সালেহীন ইমন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ থেকে সম্মানসহ স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

এর আগে তিনি ২০০০ সালে করিমগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ২০০২ সালে করিমগঞ্জ মহাবিদ্যালয় থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় স্টার মার্কস পেয়ে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন।

প্রগতিশীল মুক্তিযোদ্ধা রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান ইমন ছোটবেলা থেকেই সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত। জাতীয় পর্যায়ে শিশু কিশোর প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে জাতীয় টেলিভিশন বিতার্কিক ছিলেন।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে ১১টি জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। ১৭তম জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সারা দেশে রানার-আপ হন।

এছাড়া ২০০৬ সালে 'চ্যানেল আই ভাষা দিবস বিতর্ক প্রতিযোগিতা'য় শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হন। তিনি বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেছেন। আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে তিনি সম্পৃক্ত।

কর্মক্ষেত্রে সততা, দক্ষতা, নিষ্ঠা ও পেশাদারিত্বের জন্যে তানভীর সালেহীন ইমন ২০১৭ সালে রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) অর্জন করেন। এছাড়া ২০১৬ সালে তিনি আইজিপি ব্যাজ লাভ করেন।

কুমিল্লা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন সামাজিক কার্যক্রম ও লেখালেখির সাথেও সম্পৃক্ত। ইতোমধ্যে "আয়লা ও বিদ্যানগর গণহত্যা" নিয়ে তার একটি গবেষণা গ্রন্থ সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে, গণহত্যা-নির্যাতন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষণা কেন্দ্র ১৯৭১: গণহত্যা-নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর ট্রাস্ট এর উদ্যোগে প্রকাশিত হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর