কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে দুই পলিথিন ব্যবসায়ীর জেল-জরিমানা, বিপুল পরিমাণ পলিথিন জব্দ


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার, ৫:৪০ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবৈধ পলিথিন রাখার দায়ে মো. মজিবুর রহমান (৪৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং শফিকুল ইসলাম জনি (২৮) নামে অপর এক ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের বাণিজ্যকেন্দ্র বড়বাজারে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র এডি চন্দন দেবনাথ, জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব মাহমুদ পাশা ও উম্মে হাফ্সা নাদিয়া এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের ইন্সপেক্টর মো. আবু সাঈদ এর নেতৃত্বে পৃথক এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে মো. মজিবুর রহমান ও শফিকুল ইসলাম জনির ডিপার্টমেন্টাল স্টোর থেকে তিনশ’ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দ করা হয়।

দুই ব্যবসায়ীর মধ্যে কারাদণ্ডে দণ্ডিত মো. মজিবুর রহমান শহরের বত্রিশ এলাকার মৃত ফজলুল হকের ছেলে এবং অর্থদণ্ডে দণ্ডিত শফিকুল ইসলাম জনি কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কালটিয়া এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র এডি চন্দন দেবনাথ জানান, মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কিশোরগঞ্জ শহরের বড়বাজার এলাকায় মো. মজিবুর রহমানের ডিপার্টমেন্টাল স্টোর এবং শফিকুল ইসলাম জনি এর ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে র‌্যাব কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র এডি চন্দন দেবনাথ, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট’র আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব মাহমুদ পাশা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে হাফ্সা নাদিয়া এবং ইন্সপেক্টর মো. আবু সাঈদ, পরিবেশ অধিদপ্তর, কিশোরগঞ্জগণের নেতৃত্বে  র‌্যাবের আভিযানিক দল পৌনে ১টা থেকে বিকাল সোয়া ৪টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পৃথক পৃথক অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানের সময় তিনশ’ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দ করা হয়।

এই দুই দোকানের মালিকের মধ্যে মো. মজিবুর রহমানকে অবৈধ পলিথিন রাখার দায়ে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন এবং শফিকুল ইসলাম জনিকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর