কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে ছাত্রলীগের ১৩ ইউনিটকে গঠনতন্ত্র পরিপন্থি বলল কেন্দ্র, জেলা কমিটিকে দায়িত্ব প্রদান


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার, ১:০৬ | রাজনীতি 


কিশোরগঞ্জে জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত জেলার বিভিন্ন উপজেলা, পৌর এবং কলেজ, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের মোট ১৩টি ইউনিটকে ভিত্তিহীন এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র পরিপন্থি বলে আখ্যা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব কমিটি সমূহের কোন কার্যকারিতা নেই বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইউনিটগুলো হচ্ছে, গুরুদয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, কিশোরগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কিশোরগঞ্জ পৌর, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা, তাড়াইল উপজেলা, পাকুন্দিয়া পৌর, পাকুন্দিয়া উপজেলা, করিমগঞ্জ পৌর, করিমগঞ্জ সরকারি কলেজ, করিমগঞ্জ উপজেলা, পুলেরঘাট আঞ্চলিক, কটিয়াদী উপজেলা এবং ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজ শাখা।

এছাড়া হোসেনপুর পৌর ও হোসেনপুর উপজেলা শাখা কমিটি ইতোমধ্যে স্থগিতাদেশ ও তদন্তাধীন রয়েছে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে দ্রুত সময়ের মধ্যে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করে এসব কমিটি সমূহ পুনর্গঠনের মাধ্যমে সাংগঠনিক কাক্রম গতিশীল করারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত গুরুদয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, কিশোরগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কিশোরগঞ্জ পৌর, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা, তাড়াইল উপজেলা, পাকুন্দিয়া পৌর, পাকুন্দিয়া উপজেলা, করিমগঞ্জ পৌর, করিমগঞ্জ সরকারি কলেজ, করিমগঞ্জ উপজেলা, পুলেরঘাট আঞ্চলিক, কটিয়াদী উপজেলা এবং ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজ শাখা ইউনিট ছাত্রলীগের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যায় যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর গঠনতন্ত্র পরিপন্থি।

সুতরাং উক্ত কমিটি সমূহের কোন কার্যকারিতা নেই।

হোসেনপুর পৌর ও হোসেনপুর উপজেলা শাখা কমিটি ইতোমধ্যে স্থগিতাদেশ ও তদন্তাধীন রয়েছে।

কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হচ্ছে এবং সেই সাথে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে দ্রুত সময়ের মধ্যে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করে উক্ত কমিটি সমূহ পুনর্গঠনের মাধ্যমে সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার নির্দেশ প্রদান করা হলো।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর