কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


নিউজটি শেয়ার করে নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র আলমকে খুঁজে পেতে সাহায্য করুন


 স্টাফ রিপোর্টার | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৭:০৮ | রকমারি 


কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে বন্ধুর স্বজনের বাড়ি থেকে বেরিয়ে মো. আলম (১৫) নামে নূরানী মাদ্রাসায় পড়ুয়া এক ছাত্র নিখোঁজ রয়েছে। তাকে ফিরে পেতে স্বজনসহ পরিবারের সদস্যরা সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে ১৫ দিনেও তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ নিয়ে পরিবারের লোকজনসহ স্বজনরা উদ্বেগ উৎকন্ঠায় রয়েছেন। আলম কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার জয়সিদ্ধি ইউনিয়নের মুদিরগাঁও গ্রামের মো. মেনু মিয়ার ছেলে।

আলম মুদিরগাঁও গ্রামে নূরানী মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি আলম তাঁর বন্ধু মুস্তাকিনের সঙ্গে মুস্তাকিনের খালুর বাড়ি করিমগঞ্জের নিয়ামতপুর ইউনিয়নের মুড়িকান্দি গ্রামে বেড়াতে আসে।

এর পরদিন ৭ ফেব্রুয়ারি অনুমান সকাল ৬টার দিকে কাউকে কিছু না বলে আলম তাঁর বন্ধুর স্বজনের বাড়ি থেকে চলে যায়। কিন্তু পরে সে আর বন্ধুর স্বজনের বাড়িতে ফিরে আসেনি।

এমনকি এখন পর্যন্ত সে তাঁর নিজ বাড়ি ইটনার মুদিরগাঁওে ফিরে যায়নি। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি নিখোঁজ ছাত্র আলমের বর্ণনা দিয়ে বন্ধু মুস্তাকিনের খালু (যার বাড়ি থেকে আলম নিখোঁজ হয়) মো. হেলাল মিয়া করিমগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

মো. হেলাল মিয়া সাংবাদিকদের জানান, আলমের গায়ের রঙ শ্যামলা। মুখমণ্ডল গোলাকার। উচ্চতা অনুমান সাড়ে ৪ ফুট। হারানোর সময় তাঁর পরনে ছিল শার্ট-প্যান্ট ও জ্যাকেট।

নিখোঁজের পর থেকে তাঁরা ও আলমের পরিবারের লোকজন গত ১৫ দিন ধরে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িসহ সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও এখন পর্যন্ত আলমের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ নিয়ে তাঁরা খুবই উদ্বেগ উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন। তাই তাঁরা আলমকে ফিরে পেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

করিমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মমিনুল ইসলাম বলেন, সাধারণ ডায়েরি অনুযায়ী নিখোঁজ আলমকে খুঁজে পেতে তাঁরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর