কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


অধ্যক্ষ আবু সাঈদ খান এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী আজ


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ মে ২০২০, শনিবার, ১২:০০ | রকমারি 


অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আবু সাঈদ খান এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী আজ (১৬ মে)। ২০১৪ সালের আজকের দিনে (১৬ মে, শুক্রবার বিকাল পৌনে ৪টায়) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কিশোরগঞ্জ শহরের পশ্চিম হারুয়া এলাকার নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন।

অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আবু সাঈদ খান এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে পরিবারের পক্ষ থেকে এতিমখানা-নিজবাড়িতে কোরআনখানি ও দোয়া পড়ানো হবে।

এছাড়া আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও শুভানুধ্যায়ীদের কাছে মরহুমের রুহের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মরহুম আবু সাঈদ খান কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার নগুয়ায় অবস্থিত নূরুল উলুম আদর্শ মহিলা ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসায় দীর্ঘদিন অধ্যক্ষ পদে কর্মজীবন শেষে ২০১২ সালের অক্টোবর থেকে অবসরে ছিলেন।

তিনি প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্বে থাকাকালীন মাদ্রাসাটি জাতীয় পুরস্কার লাভের স্বীকৃতি পায়। পাশাপাশি বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করাসহ নানা ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে।

এছাড়া মরহুম আবু সাঈদ খান জেলার বিভিন্ন স্থানে দাখিল-আলিম মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে অনন্য ভূমিকা পালন করেন।

অবসরকালে মাওলানা আবু সাঈদ তাবলিগ জামাতে অংশ গ্রহণসহ বিভিন্ন সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলেন।

২০১৪ সালের ১৬ মে ৬৬ বছর বয়সে তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে, ২ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান।

মরহুমের পুত্রদের মধ্যে বড় ছেলে নাসির উদ্দিন ঢাকাস্থ একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। মেজো ছেলে মাজহার মান্না একাধারে দৈনিক জনকণ্ঠের কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি, লেখক ও কর আইনজীবী।

তৃতীয় ছেলে করিমগঞ্জ উপজেলার দেহুন্দা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (কম্পিউটার) ইমদাদুল হক এবং কনিষ্ঠ ছেলে মাওলানা জহিরুল ইসলাম হোসেনপুর উপজেলাধীন ডাহরা গোলপুকুরপাড়া আলিম মাদ্রাসায় সহকারী শিক্ষক (মৌলভী) পদে কর্মরত রয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর