কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ভৈরবের মারা যাওয়া মৎস্য ব্যবসায়ী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ মে ২০২০, মঙ্গলবার, ৬:২৯ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে গত শুক্রবার (১৫ মে) রাত ১১টার দিকে মারা যাওয়া ভৈরবের মৎস্য ব্যবসায়ী অমিয় দাস (৬০) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন।

মঙ্গলবার (১৯ মে) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় মারা যাওয়ার আগের দিন বৃহস্পতিবার (১৪ মে) অমিয় দাসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল।

নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট মঙ্গলবার (১৯ মে) সন্ধ্যার দিকে পাওয়া যায়। এতে তার রিপোর্ট কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

ভৈরব পৌরশহরের চণ্ডিবের দক্ষিণপাড়ার বাসিন্দা অমিয় দাস ভৈরব নৈশ মৎস্য আড়তের একজন প্রতিষ্ঠিত মৎস্য ব্যবসায়ী ছিলেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান আরো জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ নিয়ে কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট সাতজন মারা গেছেন।

অমিয় দাসের আগে করিমগঞ্জ উপজেলার জঙ্গলবাড়ি মুসলিমপাড়া গ্রামের সেলিম মিয়া (৪৬), কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের বড়বাজার টেনু সাহার গলি এলাকার নিতাই (৬০), হোসেনপুর উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ পানান গ্রামের ১০ বছর বয়সী শিশু মিজান, কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের মাতুয়ারকান্দা গ্রামের মোস্তফা মিয়া (৬০), কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের বাট্টা গ্রামের তরুণ ভূইয়া (৪০) এবং বাজিতপুর পৌরসভার চারবাড়িয়া এলাকার মো. আল আমিন মিয়া (৬০) মারা যান।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর