কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে নতুন করে ৪৭ জনের করোনা শনাক্ত, মোট শনাক্ত ৫শ’ ছাড়ালো


 স্টাফ রিপোর্টার | ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, ১২:০২ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জ জেলায় সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (৪ জুন) রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ৪৭ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এতে জেলায় মোট শনাক্ত ৫শ’ ছাড়িয়ে গেছে। অন্যদিকে ৬ জন সুস্থ হয়েছেন।

শনিবার (৩০ মে) জেলায় সংগৃহীত ১১১ জনের নমুনা মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) এবং মঙ্গলবার (২ জুন) কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া, ভৈরব ও কুলিয়ারচর উপজেলায় সংগৃহীত ৬৭ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। দু’টি ল্যাবে মোট ১৭৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ৪৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বুধবার (৩ জুন) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৪৫৬ জন। বৃহস্পতিবার (৪ জুন) নতুন করে আরো  ৪৭ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০৩ জনে।

এদিকে নতুন করে জেলায় ৬ জন করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন। এর আগে জেলায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল ২১০ জন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১৬ জন।

বর্তমানে জেলায় মোট ২৭৭ জন করোনা রোগী এবং ৭ জন সাসপেক্টটেড বিভিন্ন হাসপাতাল ও নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন। এর মধ্যে অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ২ জন করোনা পজেটিভ রয়েছেন।

গত মঙ্গলবার (২ জুন) কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া, ভৈরব ও কুলিয়ারচর উপজেলা থেকে সংগৃহীত ৬৭ জনের নমুনা শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা হয়েছে। এতে ২৩ জনের পজেটিভ এবং ৪৪ জনের নেগেটিভ এসেছে।

অন্যদিকে গত শনিবার (৩০ মে) জেলায় সংগৃহীত মোট ১১১ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) এ পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে ২ জনের নমুনা ইনভেলিড হয়েছে।

বাকি ১০৯ জনের নমুনার মধ্যে নতুন করে ২৪ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। এছাড়া ৮৫ জনের নেগেটিভ এসেছে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে শনিবার (৩০ মে) জেলায় সংগৃহীত ও মঙ্গলবার (২ জুন) কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া, ভৈরব ও কুলিয়ারচর উপজেলায় সংগৃহীত মোট ১৭৮ জনের নমুনার মধ্যে ১২৯ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

এছাড়া ৪৭ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। দুইজনের নমুনা বাতিল বা ইনভেলিড হয়েছে।

মোট ২২১ জনের নমুনার মধ্যে ৬৭ জনের নমুনা শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা হয়েছে। এতে ২৩ জনের পজেটিভ এবং ৪৪ জনের নেগেটিভ এসেছে।

অন্যদিকে ১১১ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) এ পাঠানো হয়েছিল। এই ১১১ জনের নমুনার মধ্যে নতুন করে ২৪ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। দুইজনের নমুনা ইনভেলিড ৮৫ জনের নেগেটিভ এসেছে।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া এই ৪৭ জনের মধ্যে তাড়াইল উপজেলার ১ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলার ২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৪ জন, নিকলী উপজেলার ১ জন, বাজিতপুর উপজেলার ২ জন, ইটনা উপজেলার ৪ জন এবং ভৈরব উপজেলার ৩৩ জন রয়েছেন।

ফলে বৃহস্পতিবার (৪ জুন) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ৫০৩ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ৬৫ জন, হোসেনপুর উপজেলার ১৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৪১ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৫০ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ২৬ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৯ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১৯ জন, ভৈরব উপজেলায় ১৮৩ জন, নিকলী উপজেলায় ১০ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৩২ জন, ইটনা উপজেলায় ১৭ জন, মিঠামইন উপজেলায় ২৫ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ১২ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ২ জন, হোসেনপুর উপজেলার ১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, কটিয়াদী উপজেলার ১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ১ জন, ভৈরব উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন রয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর