কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


নিকলীতে অবৈধ বালু উত্তোলনকারীর লাখ টাকা জরিমানা


 খাইরুল মোমেন স্বপন, নিকলী | ২৩ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:৩০ | নিকলী  


কিশোরগঞ্জের নিকলীতে আমিনুল ইসলাম হাবীব (৫৫) নামে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী চক্রের এক সদস্যকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার (২২ জুন) বিকালে উপজেলার বোয়ালিয়া নদীতে অভিযান পরিচালনা করে আমিনুল ইসলাম হাবীবকে আটকের পর ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সামছুদ্দিন মুন্না এই জরিমানা করেন।

নগদ জরিমানা ও মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পাওয়া আমিনুল ইসলাম হাবীব উপজেলার দামপাড়া ইউনিয়নের মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

জানা যায়, হাওরকেন্দ্রিক নিকলী একটি ভাঙনকবলিত উপজেলা। এ উপজেলায় সরকার নির্দেশিত কোন বালুমহাল নেই।

এরপরও দীর্ঘদিন যাবৎ একাধিক প্রভাবশালী চক্র সদর. সিংপুর ও ছাতিরচর ইউনিয়নের বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে বালু উত্তোলন করে আসছে।

বিভিন্ন সময়ে বালু উত্তোলন কাজে নিয়োজিত একাধিক ড্রেজার এবং হোতাদের আটক ও জেল জরিমানা করা হয়। কিন্তু প্রভাবশালী মহলের হস্তক্ষেপে আইনের ফাঁক গলে বেরিয়ে আবারও উচ্চ মুনাফার লোভে একই কাজ করে। ফলে বালু উত্তোলন বন্ধ করা যাচ্ছে না।

ইতোমধ্যে ভাঙনকবলিত সিংপুর ও ছাতিরচর ইউনিয়নের সহস্রাধিক পরিবার ভিটে মাটি হারিয়েছে।

এ রকম পরিস্থিতিতে সোমবার (২২ জুন) বিকাল ৫টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিংপুর ইউনিয়নের বোয়ালিয়া নদীতে অভিযান চালান ইউএনও সামছুদ্দিন মুন্না। অভিযানে বালু উত্তোলনরত অবস্থায় আমিনুল ইসলাম হাবীবকে আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে নিকলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামছুদ্দিন মুন্না জানান, বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ১৫ ধারা মোতাবেক একজনকে আটক করা হয়। জেলহাজতের বিপরীতে তার কাছ থেকে নগদ জরিমানা ও মুচলেকা আদায় করে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর