কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে নতুন ১৪ জনের করোনা, পাকুন্দিয়াতেই ৬, মোট শনাক্ত ১৭৮১ জনের মধ্যে সুস্থ ১৫৪০


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, ১০:৪৩ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ বুধবার (১৫ জুলাই) দিবাগত রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে জেলায় নতুন করে ১৪ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৭৮১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া নতুন করে আরো ১৬ জন সুস্থ হয়েছেন। এনিয়ে মোট ১৫৪০ জন সুস্থ হয়েছেন।

অন্যদিকে জেলায় এ পর্যন্ত মোট ৩১ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২১০ জন। তাদের মধ্যে ১৮ জন হাসপাতালে এবং বাকি ১৯২ জন নিজ নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

বুধবার (১৫ জুলাই) দিবাগত রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে জেলায় নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ১৪ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ১ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় সর্বোচ্চ ৬ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১ জন, ভৈরব উপজেলায় ১ জন এবং বাজিতপুর উপজেলায় ১ জন রয়েছেন।

অন্যদিকে নতুন করে জেলায় ১৬ জন করোনাভাইরাস মুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া এই ১৬ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার সর্বোচ্চ ৯ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলার ৩ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন এবং ভৈরব উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রি-আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তিকৃত জরুরী রোগীসহ সোমবার (১৩ জুলাই), মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) ও বুধবার (১৫ জুলাই) সংগৃহীত ১৮৮ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়।

ল্যাবটিতে এই ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১৭৬৭ জন। বুধবার (১৫ জুলাই) নতুন করে আরো ১৪ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭৮১ জনে।

এদিকে জেলায় করোনাভাইরাস থেকে নতুন করে ১৬ জন সুস্থ হয়েছেন। এর আগে জেলায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল ১৫২৪ জন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৪০ জন।

বর্তমানে অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ১ জন করোনা পজেটিভসহ জেলায় মোট ২১১ জন করোনা রোগী এবং ১০ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতাল ও নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন।

বুধবার (১৫ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, প্রকাশিত ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ১৪ জনের পজেটিভ ও ১৭৩ জনের নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া পুরাতন পজেটিভ একজনের আবারো পজেটিভ এসেছে।

ফলে বুধবার (১৫ জুলাই) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ১৭৮১ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪৪৭ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৪১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১১১ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৮০ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ৯৩ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১০৬ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১০৫ জন, ভৈরব উপজেলায় ৫৩৫ জন, নিকলী উপজেলায় ৩২ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ১৫১ জন, ইটনা উপজেলায় ৩০ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৩৮ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১২ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ৩১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ৬ জন, হোসেনপুর উপজেলার ১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ২ জন, ভৈরব উপজেলার ১৩ জন, নিকলী উপজেলার ২ জন, বাজিতপুর উপজেলার ২ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২১০ জন। উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৮৭ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৬ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৫ জন, তাড়াইল উপজেলায় ২ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ২০ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৯ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৩ জন, ভৈরব উপজেলায় ৩৫ জন, নিকলী উপজেলায় ২ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২০ জন, ইটনা উপজেলায় ২ জন, মিঠামইন উপজেলায় ১ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৮ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর