কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে সেক্টর কমান্ডার সি.আর দত্ত ও আবু উসমান চৌধুরী স্মরণে আলোচনা সভা


 স্টাফ রিপোর্টার | ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৪:২২ | কিশোরগঞ্জ সদর 


মহান মুক্তিযুদ্ধের ৪ নম্বর সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল (অব.) সি. আর দত্ত এবং মুক্তিযুদ্ধের ৮ নম্বর সেক্টর কমান্ডার লেঃ কর্ণেল (অব.) আবু উসমান চৌধুরী স্মরণে কিশোরগঞ্জে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রবীণ হিতৈষী সংঘ-শহর সমবায় সমিতি ভবনে কামরুন মহিউদ্দিন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট বাংলাদেশ প্রয়াত গুণী ব্যক্তিদের এই স্মরণসভার আয়োজন করে।

এতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের মুক্তিযোদ্ধাগণ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও ট্রাস্টের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ডাঃ মহিউদ্দিন আহাম্মদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মহান মুক্তিযুদ্ধসহ গুণী ব্যক্তিবর্গের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের নানা দিক তুলে ধরে আলোকপাত করেন কোম্পানী কমান্ডার অ্যাডভোকেট আইয়ুব বিন হায়দার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল মান্নান, জেলা ক্যাব সভাপতি আলম সারোয়ার টিটু, পাকুন্দিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার মিজবাহ উদ্দিন আহমেদ, জেলা জজ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক, ওবায়দুল্লাহ জাকির প্রমুখ।

আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন কামরুন মহিউদ্দিন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট বাংলাদেশ এর সেক্রেটারি জেনারেল মোঃ রুহুল আমিন।

বক্তাগণ বলেন, প্রয়াত দুই সেক্টার কমান্ডার ছিলেন জাতীয় বীর। তাঁরা জীবনের পরোয়া না করে দেশ মাতৃকার প্রতি গভীর দরদ ও ভালবাসা থেকে স্বাধীনতা অর্জনে অনন্য অবদান রেখেছেন। এ জন্য জাতি ও দেশের মানুষ কীর্তিমান এই গুণী ব্যক্তিদের আজীবন স্মরণ করবে। তাঁদের মৃত্যু জাতির জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।

প্রসঙ্গত, প্রয়াত চিত্ত রঞ্জন দত্ত (সি আর দত্ত) বীর-উত্তম পেশা জীবনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের (অধুনালুপ্ত বাংলাদেশ রাইফেলস) প্রতিষ্ঠাতা মহাপরিচালক, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

এছাড়া তিনি বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৫ আগস্ট বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় মৃত্যুবরণ করেন।

অপরদিকে প্রয়াত আবু ওসমান চৌধুরী পেশাগত জীবনে সর্বশেষ চাঁদপুরের জেলা পরিষদের প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটি গঠনেও ভূমিকা রেখেছেন। তিনি গত ৫ সেপ্টেম্বর রাজধানীর সিএমএইচ-এ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর