কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে করোনা শনাক্ত বেড়ে ২৭৭৯, সুস্থ বেড়ে ২৬১৮, আক্রান্ত কমে ১১৩


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার, ১০:২৭ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে প্রকাশিত রিপোর্টে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৬ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এতে করে জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৭৭৯ জনের করোনা শনাক্ত হলো।

অন্যদিকে নতুন করে জেলায় মোট ১০ জন করোনামুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৬১৮। এই ২৪ ঘন্টায়ও জেলায় করোনা আক্রান্ত কোন মৃত্যু নেই। ফলে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৪৮ অপরিবর্তিত রয়েছে।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ৬ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ২ জন শনাক্ত হয়েছেন। বাকি ৪ জনের মধ্যে করিমগঞ্জ উপজেলায় ১ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ১ জন, ভৈরব উপজেলায় ১ জন এবং বাজিতপুর উপজেলায় ১ জন শনাক্ত হয়েছেন।

এই ২৪ ঘন্টায় জেলার করোনা ডেডিকেটেড কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করে ১ জন ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া ৩ জন ছাড়পত্র পেয়েছেন।

বর্তমানে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ও সন্দেহজনক মোট ২৭ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫ জন আইসিইউ’তে ভর্তি রয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া ১০ জনের মধ্যে ৬ জন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার। বাকি ৪ জনের মধ্যে হোসেনপুর উপজেলার ২ জন এবং কুলিয়ারচর উপজেলার ২ জন।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ও রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) জেলায় সংগৃহীত ৮২ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে এবং বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ২৪ জনের নমুনাসহ মোট ১০৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে এই ৬ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে ৯৮ জনের নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া পুরাতন পজেটিভ দুইজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) নতুন ৬ জনের করোনা পজেটিভ আসায় জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৭৭৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ২৬১৮ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া করোনার ছোবলে এই সময়ে ঝরে গেছে ৪৮টি মূল্যবাণ প্রাণ।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১১৩ জন। যা গতদিনের চেয়ে ৪ জন কম। তাদের মধ্যে ১১ জন হাসপাতালে এবং বাকি ১০২ জন নিজ নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

এছাড়া অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ১ জন করোনা পজেটিভ এবং ১৫ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, প্রকাশিত ১০৬ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ৬ জনের পজেটিভ ও ৯৮ জনের নেগেটিভ এসেছে।

এছাড়া পুরাতন পজেটিভ দুইজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

ফলে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ২৭৭৯ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে মোট সংক্রমণ, মৃত্যু, সুস্থ ও আক্রান্তসহ সব সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

সর্বমোট ৯৭৩ জন শনাক্ত, সর্বমোট ৯২১ জন সুস্থ, সর্বমোট ১৫ জনের মৃত্যু ও সর্বমোট ৩৭ জন বর্তমানে আক্রান্ত নিয়ে এই চার সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

তবে মোট মৃত্যুতে সদর উপজেলার সাথে একই অবস্থানে রয়েছে জেলার ভৈরব উপজেলা।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৯৭৩ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৭০ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১৪৩ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১০৯ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৫৫ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৭৬ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১২৬ জন, ভৈরব উপজেলায় ৬৩৬ জন, নিকলী উপজেলায় ৫১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২৪২ জন, ইটনা উপজেলায় ৩৪ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৪৩ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ২১ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ৪৮ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১৫ জন, হোসেনপুর উপজেলার ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন, ভৈরব উপজেলার ১৫ জন, নিকলী উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ৩ জন, ইটনা উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১১৩ জন। উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩৭ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৬ জন, তাড়াইল উপজেলায় ২ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১২ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৫ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১ জন, ভৈরব উপজেলায় ১৭ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ১৮ জন, ইটনা উপজেলায় ১ জন, মিঠামইন উপজেলায় ১ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার একমাত্র উপজেলা নিকলীতে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত কোন রোগী নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর