কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে করোনা শনাক্ত বেড়ে ২৮০৫, সুস্থ বেড়ে ২৬৪৬, আরো একজনের মৃত্যু


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ১১:৩৪ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে প্রকাশিত রিপোর্টে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৩ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এতে করে জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৮০৫ জনের করোনা শনাক্ত হলো।

অন্যদিকে নতুন করে জেলায় মোট ১০ জন করোনামুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৬৪৬। এই ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে এখন ৪৯ হয়েছে।

সর্বশেষ মারা যাওয়া ব্যক্তি একজন পুরুষ এবং তার বয়স ৬৫ বছর। তিনি জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার বাসিন্দা।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১১টায় কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গত ২৩ সেপ্টেম্বর তার কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছিল।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ৩ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ২ জন শনাক্ত হয়েছেন। বাকি ১ জন কটিয়াদী উপজেলায় শনাক্ত হয়েছেন।

এই ২৪ ঘন্টায় জেলার করোনা ডেডিকেটেড কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করে ২ জন ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া ১ জন ছাড়পত্র পেয়েছেন।

বর্তমানে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ও সন্দেহজনক মোট ২৭ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫ জন আইসিইউ’তে ভর্তি রয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া ১০ জনের মধ্যে ৪ জন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার। বাকি ৬ জনের মধ্যে ভৈরব উপজেলার ৫ জন এবং বাজিতপুর উপজেলার ১ জন।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ও বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) জেলায় সংগৃহীত ৬৩ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে এবং সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর ও মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ৪৫ জনের নমুনা সহ মোট ১০৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে এই ৩ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে ১০২ জনের নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া পুরাতন পজেটিভ তিনজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) নতুন ৩ জনের করোনা পজেটিভ আসায় জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৮০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ২৬৪৬ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া করোনার ছোবলে এই সময়ে ঝরে গেছে ৪৯টি মূল্যবাণ প্রাণ।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১১০ জন। যা গতদিনের চেয়ে ৮ জন কম। তাদের মধ্যে ১৮ জন হাসপাতালে এবং বাকি ৯২ জন নিজ নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

এছাড়া ৯ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, প্রকাশিত ১০৮ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ৩ জনের পজেটিভ ও ১০২ জনের নেগেটিভ এসেছে।

এছাড়া পুরাতন পজেটিভ তিনজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

ফলে বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ২৮০৫ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে মোট সংক্রমণ, মৃত্যু, সুস্থ ও আক্রান্তসহ সব সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

সর্বমোট ৯৮৪ জন শনাক্ত, সর্বমোট ৯৩৫ জন সুস্থ, সর্বমোট ১৫ জনের মৃত্যু ও সর্বমোট ৩৪ জন বর্তমানে আক্রান্ত নিয়ে এই চার সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

তবে মোট মৃত্যুতে সদর উপজেলার সাথে একই অবস্থানে রয়েছে জেলার ভৈরব উপজেলা।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৯৮৪ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৭১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১৪৩ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১১১ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৫৬ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৮১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১২৭ জন, ভৈরব উপজেলায় ৬৪০ জন, নিকলী উপজেলায় ৫১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২৪৩ জন, ইটনা উপজেলায় ৩৪ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৪৩ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ২১ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ৪৯ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১৫ জন, হোসেনপুর উপজেলার ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন, ভৈরব উপজেলার ১৫ জন, নিকলী উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ৩ জন, ইটনা উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১১০ জন। উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩৪ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৬ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৪ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১২ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৮ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ২ জন, ভৈরব উপজেলায় ১৪ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ১৪ জন, ইটনা উপজেলায় ১ জন, মিঠামইন উপজেলায় ১ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার একমাত্র উপজেলা নিকলীতে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত কোন রোগী নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর