kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

অলিম্পিক জয়ের স্বপ্ন দেখছে দেশ সেরা সাঁতারু কটিয়াদীর প্রমি



 মো. রফিকুল হায়দার টিটু, স্টাফ রিপোর্টার, কটিয়াদী | ১৯ এপ্রিল ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৪:৩৮ | খেলাধুলা 


কটিয়াদী পৌর এলাকার এক সাধারণ কৃষক হায়দার আলীর মেয়ে প্রমি এখন অলিম্পিক জয়ের স্বপ্ন দেখছে। ইতোমধ্যে উপজেলা এবং জেলার গণ্ডি পেরিয়ে দেশ সেরা সাঁতারু হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে প্রমি।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, পৌর এলাকার নরিন মডেল একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শফিঊল আলম রিপনের অনুপ্রেরণায় স্কুল সংলগ্ন পুকুরে সাঁতারে প্রমি আক্তারের প্রথম হাতেখড়ি। তখন সে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী। ২০১৫সনে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় ১০০ মিটার মুক্ত সাঁতারে জেলায় ১ম স্থান অর্জন করে তাক লাগিয়ে দেয় সে। তারপর থেকেই উৎসাহ বেড়ে যায়। মা-বাবা এবং শিক্ষকেরাও তাকে অনুপ্রেরণা দিতে থাকেন। প্রমিও তার অনুশীলন অব্যাহত রাখে। ২০১৬ সনে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় ১০০ মিটার মুক্ত সাঁতারে জাতীয় পর্যায়ে ৩য়  স্থান লাভ করে এবং একই বছর অর্থাৎ ২০১৬ সনে বাংলাদেশ মহিলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে আন্ত:জেলা বয়স ভিত্তিক মহিলা সাঁতার প্রতিযোগিতায় ৫০ মিটার ফ্রী স্টাইলে জেলায় ২য় স্থান লাভ করে।

বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশন আয়োজিত সেরা সাঁতারুর খোঁজে বয়স ভিত্তিক ১১-১২ প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে ১ম স্থান অর্জন করে প্রমি। এ অর্জনের স্বীকৃতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট হতে সে ৫ লাখ টাকার চেক গ্রহণ করে। ২০১৭ সনে ১০০ মিটার মুক্ত সাঁতারে জাতীয় পর্যায়ে ১ম হয়ে রাষ্ট্রপতি কর্তৃক গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত হয় প্রমি। তারপরই নজরে আসে বিকেএসপির। প্রমিকে ভর্তি করা হয় বিকেএসপিতে।

ওই বছরই (২০১৭) বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) আয়োজিত ৩য় বিকেএসপি কাপ সাঁতার প্রতিযোগিতায় ৭টি বিভাগে অংশ গ্রহণ করে সবকটিতেই ১ম স্থান লাভ করে। বিভাগগুলো হচ্ছে, ১০০ মিটার বাটারফাই, ১০০ মিটার ফ্রী স্টাইল, ৫০ মিটার ফ্রী স্টাইল, ২০০ মিটার ইন্ডিভিজুয়াল মিডলে, ১০০ মিটার বাটারফাই, ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্টোক, ৫০ মিটার ব্রেস্ট স্টোক, ১০০ মিটার ব্যাক স্টোক, ৫০ মিটার ব্যাক স্টোক সাঁতার। বর্তমানে প্রমি সাভার বিকেএসপিতে ৭ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। পাশাপাশি বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের তত্ত্বাবধানে মিরপুর সৈয়দ নজরুল ইসলাম সুইমিং কমপ্লেক্সে ৩ বছর মেয়াদে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।

প্রমি আক্তার এর ভাষায়, আমার মা-বাবা ও শিক্ষকের অনুপ্রেরণা, প্রচেষ্টা এবং আল্লাহর রহমতে আমি বাংলাদেশের সেরা সাঁতারু হতে পেরেছি। এখন আমি স্বপ্ন দেখছি অলিম্পিক জয়ের। সেই লক্ষেই আমি অনুশীলন করে যাচ্ছি। আমি দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই যেন আমি আমার লক্ষে পৌঁছতে পারি।

প্রমির মা রাহিমা আক্তার বলেন, আমাদের অভাবের সংসার। ৫ সন্তানের মাঝে প্রমিই বড়। তাকে সাধ্যমত যতœ করা সম্ভব হয়ে উঠেনি। তবে এখন সরকার থেকেই সার্বিক সহযোগিতা পাচ্ছি। আমি আশা করি, দেশবাসীর দোয়া থাকলে আমার মেয়ে একদিন অলিম্পিক জয় করে আমাদের এবং দেশের মুখ উজ্জল করবে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ