কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে কালের কণ্ঠের জাঁকজমকপূর্ণ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা


 স্টাফ রিপোর্টার | ১০ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার, ৩:১০ | কিশোরগঞ্জ সদর 



কিশোরগঞ্জে কালের কণ্ঠের দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী মহা ধুমধামে পালিত হয়েছে। শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকালে জেলা পাবলিক লাইব্রেরিতে বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে পত্রিকার জন্মদিন উদযাপন করা হয়।

পুরো আয়োজনের মধ্যমণি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইল। তাঁকে কালের কণ্ঠ পাঠক সংগঠন শুভ সংঘের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা ও বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ। পাবলিক প্রসিকিউটর ও কিশোরগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি শাহ আজিজুল হক পুরো অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

প্রথম পর্বে মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইলকে অনুষ্ঠানের সভাপতি, প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিরা উত্তরীয় পরিয়ে দেন। পরে তাঁর হাতে ক্রেস্ট ও অনুদান তুলে দেওয়া হয়।

এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মামুন আল মাসুদ খান, যুগান্তরের কিশোরগঞ্জের ব্যুারো প্রধান এটিএম নিজাম, দৈনিক ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি সুবীর বসাক, সমকালের অফিস প্রধান সাইফুল হক মোল্লা দুলু, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোস্তফা কামাল, সাংবাদিক লুৎফর রশিদ রানা, জেলা সিপিবি সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিলকিস বেগম, বিশিষ্ট ছড়াকার জাহাঙ্গীর আলম জাহান, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম সরকার বাধন, শিল্পী আবুল হাশেম, বিএনপি নেতা শফিউজ্জামান, জেলা গণতন্ত্রী পার্টি নেতা আব্দুল আউয়াল, জেলা সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক আলফাজ উদ্দিন আহমেদ দিপু, আবৃত্তিকার ম ম জুয়েল, কিশোরগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সহসভাপতি নূর মোহাম্মদ, সাধারণ সম্পাদক বিজয় রায় খোকা, কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল মালেক চৌধুরী প্রমুখ।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কালের কণ্ঠের কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি শফিক আদনান।

আলোচকরা তাঁদের বক্তৃতায় কালের কণ্ঠের জন্য শুভ কামনা করেন। বস্তুনিষ্ট ও দায়িত্বশীল সাংবাদিকতায় পত্রিকাটি যে নজির সৃষ্টি করেছে তা আরও এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধি, সাংবাদিক, শুভ সংঘের সদস্যরা এবং এজেন্ট এম এ সাদেক মুকুল উপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় পর্বে কালের কণ্ঠের দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। উপস্থিত সবাইকে মিষ্টি মুখ করানো হয়।

সম্মাননা পেয়ে মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইল তাঁর বক্তৃতায় কালের কণ্ঠের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। এ সময় তিনি মুক্তিযুদ্ধে তাঁর বীরত্বের বর্ণনা দেন।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর