কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মারা গেছেন মা-ও, বাবা নয় মৃত ভাতিজিকে জড়িয়ে ধরেই জ্ঞান হারান চাচা শারফুল


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার, ১:১০ | সারাদেশ 


ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে শিশুসহ আটজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন আরও ছয়জন। মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সকাল পৌনে ৮টার দিকে ফুলপুর-শেরপুর সড়কের বাঁশাটি এলাকায় মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, ১৪ জন যাত্রী নিয়ে মাইক্রোবাসটি ময়মনসিংহের ভালুকা থেকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় যাচ্ছিল। মাইক্রোবাসের যাত্রীরা এক আত্মীয়ের জানাজার নামাজে অংশ নিতে সেখানে যাচ্ছিলেন।

পথে ফুলপুরের বাঁশাটি নামক স্থানে মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়।

বাসটি পানির মধ্যে ডুবে গেলে নিজে বেঁচে ফিরলেও ভালোবাসার সন্তান বুলবুলিকে বাঁচাতে পারেননি বাবা শাহজাহান মিয়া। এই দুর্ঘটনায় কেবল শাহজাহান মিয়ার ৭ বছর বয়সী মেয়ে বুলবুলিই মারা যায়নি শাহজাহান মিয়া হারিয়েছেন তার প্রিয়তম স্ত্রী বেগম (৩০) কেও।

একই দুর্ঘটনায় স্ত্রী ও সন্তানকে হারিয়ে বার বার জ্ঞান হারাচ্ছেন শাহজাহান মিয়া।

মৃত ভাতিজিকে জড়িয়ে ধরে জ্ঞান হারান চাচা শারফুল।

দুর্ঘটনায় হতাহতদের লাশ উদ্ধারের পর চাচা-ভাতিজির বুকে জড়িয়ে থাকার স্থিরচিত্রকে বাবা-মেয়ের ছবি হিসেবে ভাইরাল হয় ফেসবুকে।

ছবিটি নাড়া দেয় সবার হৃদয়ে। নেটিজেনরা ব্যক্ত করেন তাদের ভালবাসা আর সহমর্মিতা।

শাহজাহান মিয়া ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার বাকশীবাড়ি বিরুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

এই দুর্ঘটনায় নিহত অন্যরা হচ্ছেন, গফরগাঁও উপজেলার বাতুরী মশাখালী এলাকার শামসুল হক (৬৫), তারাকান্দা উপজেলার দাদরা এলাকার নবী হোসেন (৩০), ভালুকার বাকশীবাড়ি বিরুনিয়া এলাকার মিলুয়ারা বেগম (৫৫), গফরগাঁওয়ের শেখ বাজার এলাকার রিপা খাতুন (৩০), একই এলাকার রেজিয়া খাতুন (৫৩) ও পাগলার মশাখালি এলাকার পারুল আক্তার (৫০)।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর