কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


‘করোনাকালীন সংকট মোকাবেলায় ইউনিয়ন পরিষদের সেবা: চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ বিষয়ে সনাকের মতবিনিময়


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৪:১২ | কিশোরগঞ্জ সদর 


সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), টিআইবি, কিশোরগঞ্জ এর উদ্যোগে, “করোনাকালীন সংকট মোকাবেলায় ইউনিয়ন পরিষদের সেবা : চ্যালেঞ্জ ও করণীয়” বিষয়ে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার এগারোটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও  সচিবদের নিয়ে অনলাইন মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) জুম অ্যাপে এই অনলাইন মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কিশোরগঞ্জের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

সনাক সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মামুন আল মাসুদ খান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদকে শক্তিশালীকরণে সদিচ্ছা ও আন্তরিকতা বৃদ্ধি করতে হবে। প্রান্তিক মানুষের নিকট সেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য সরকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

করোনাকালীন সময়ে অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে সবাই দায়িত্ব পালন করেছে। দেশের বিভিন্ন জেলায় ত্রাণ বিতরণে বিভিন্ন অনিয়মের খবর প্রকাশিত হলেও কিশোরগঞ্জে এমন উদাহরণ নেই। যে কয়েকটি অভিযোগ পাওয়া গিয়েছিলো সবগুলোর দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিলো।

কিশোরগঞ্জ এ কোন মডেল ইউনিয়ন পরিষদ নেই, তাই আমাদের সে উদ্দেশ্যে কাজ করা উচিত।

তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন উপকারভোগীর তালিকা দৃশ্যমান করার মাধ্যমে পরিষদ তাদের কাজের স্বচ্ছতা ও নিজেদের সততার বিষয়টি প্রমাণ করতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান মামুন আল মাসুদ খান বলেন, পরিষদ পরিচালনার নীতিমালায় অত্যন্ত সুন্দর ও পরিষ্কার ভাষায় ওয়ার্ড ভিত্তিক কর্মসূচি বাস্তবায়নের কথা বলা আছে। যদি সেভাবে কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয় তাহলে দুর্নীতির কোন সুযোগ থাকে না।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র সাধারণ পর্ষদ সদস্য অ্যাডভোকেট মায়া ভৌমিক, উর্ধ্বতন কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মো. আতিকুর রহমান, যশোদল ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইমতিয়াজ সুলতান রাজন, চৌদ্দশত ইউপি চেয়ারম্যান এ বি সিদ্দিক খোকা, মাইজকাপন ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুকন উদ্দিন ভূঞা, যশোদল ইউপি সচিব কুতুব উদ্দিন, চৌদ্দশত ইউপি সচিব নারায়ন চন্দ্র সরকার প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে সনাক সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলু সকলের অংশগ্রহণের উপর গুরুত্বআরোপ করে বলেন, সনাকের কার্যক্রম কারো বিরুদ্ধে নয়, স্বচ্ছতা ও জনসম্পৃক্ততা বৃদ্ধির মাধ্যমে জনসেবা বৃদ্ধিই উদ্দেশ্য। সামনের দিনগুলোতে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে আরও কার্যকর অনুষ্ঠান আয়োজনের প্রত্যশা ব্যক্ত করেন তিনি।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সনাক সদস্যবৃন্দ, স্বজন সদস্যবৃন্দ, সদর উপজেলার এগারো ইউনিয়নের সচিব ও চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইয়েস সদস্য এবং টিআইবি কর্মকর্তাবৃন্দ।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর