কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


অনলাইন গেইম এ আসক্তি বাড়ছে পাকুন্দিয়ার তরুণদের


 মো. তরীকুল হাসান, পাকুন্দিয়া | ২৪ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ১:৪২ | পাকুন্দিয়া  


এক সময়ে তরুণরা অবসর কাটাতো বই পড়ে, মাঠে খেলে, বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিয়ে এবং সাংস্কৃতিক চর্চার মধ্য দিয়ে। কিন্তু তথ্য প্রযুক্তির সহজলভ্যতার এই সময়ে এর জায়গা দখল করে নিয়েছে প্লেয়ার আননোউনস ব্যাটল গ্রাউন্ড (PUBG) সহ বিভিন্ন অনলাইন ভিডিও গেইম।

এসব গেইমের প্রতি আসক্ত তরুণদের সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। পাকুন্দিয়া উপজেলার মফস্বল গ্রামগুলোতেও এসব অনলাইন গেইমাসক্তদের সংখ্যা  বেড়ে যাওয়ায় উৎকণ্ঠায় রয়েছে অভিভাবকগণ।

মাদকাসক্তির মতো অনলাইন গেইম এ আসক্ত এসব তরুণদের মারাত্বক স্বাস্থ্য ঝুঁকি রয়েছে বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞগণ।

উপজেলার পৌরসদর, বরাটিয়া, উত্তরপাড়া, তারাকান্দি ও হোসেন্দি গ্রামের কয়েকজন অভিভাবকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঘরে বাইরে, মাঠের কোণে, রাস্তার মোড়ে মোড়ে, এমনকি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানেও কাজ ফাঁকি দিয়ে অনলাইন গেইম এ মত্ত উঠতি বয়সের তরুণেরা।

হাতে থাকা স্মার্ট ফোনের স্ক্রীনে দৃষ্টি রেখে ঘন্টার পর ঘন্টা খেলে যাচ্ছে অনলাইন গেইম। একটি  স্মার্ট ফোন, ইন্টারনেট সংযোগ আর ডাটা প্যাক হলেই খেলা যায় এই গেইম।

গেমাসক্ত তরুণরা প্রয়োজনীয় ডাটা প্যাক কিনতে চুরি ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে।

তারাকান্দি গ্রামের একজন অভিভাবক নয়ন মিয়া (৫২) জানান, ছেলেটা পড়াশোনা বাদ দিয়ে রাত জেগে গেইম খেলে সকাল ১১ টায় ঘুম থেকে উঠে। অন্য কোন কাজে মন নেই, মেজাজ খিটখিটে হয়ে গেছে। তাকে নিয়ে আর পারছি না।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শারমিন শাহনাজ বলেন, ক্রমাগত এ গেইমের প্রতি আসক্তির কারণে অন্য কাজের প্রতি মনোযোগ কমে যায়, ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে, স্মার্ট ফোনের স্ক্রীনের আলোতে চোখের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এছাড়া এটি মনের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করে বিচ্ছিন্নতা ভাব তৈরি করে। বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা এ আসক্তিকে মনঃস্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

তিনি আরও বলেন, দেশ গঠনের হাতিয়ার তরুণ সমাজ গেইম এ আসক্ত হয়ে বাস্তব জীবনের মূল্যবান সময় নষ্ট করে কাল্পনিক স্কোর বাড়াতে মগ্ন থাকে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাহিদ হাসান বলেন, অনলাইন গেইম এ আসক্ত এসব তরুণদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে পারিবারিক অনুশাসন ও কাউন্সিলিং এর বিকল্প নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর