কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


‘তোমার টাকায় যেন কাফনের কাপড় কেনা না হয়’


 আমিনুল ইসলাম বাবুল | ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বুধবার, ১২:৩৩ | তাড়াইল  


কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে সুইসাইড নোট লিখে একই রশিতে মা-মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার দামিহা ইউনিয়নের রাহেলা গ্রামের বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তাদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতরা হচ্ছে, রাহেলা গ্রামের ওমায়ের এর স্ত্রী শাহনাজ বেগম (৩০) ও তার মেয়ে প্রিয়তি (১২)। নিহত শাহনাজ মরিশাস প্রবাসী ছিলেন এবং তার মেয়ে প্রিয়তি ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

তাড়াইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মুজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, ওমায়ের ও শাহনাজ দু’জনেই এক সময়ে মরিশাসে ছিলেন।

বছর তিনেক আগে তারা দেশে ফিরেন। তাদের প্রিয়তি ও ফারিহা (আড়াই বছর) নামে দুই কন্যাসন্তান রয়েছে।

কিন্তু বেশ কয়েক মাস ধরে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। কয়েক মাস আগে নরসিংদীতে আরেকটি বিয়ে করে ওমায়ের। এতে দুজনের সম্পর্কের আরো অবনতি ঘটে।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালের নাস্তা দিতে দেরি হয় শাহনাজের। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওমায়ের স্ত্রীকে বকাঝকা করে। মেয়ে প্রিয়তি মা’কে বকাঝকার প্রতিবাদ করে। ফলে মা-মেয়ে দু’জনকেই বকাঝকা করে ও মায়ের বাড়ি ছেড়ে চলে যান।

মা-মেয়ে সারাদিন বিষণ্নভাবে কাটায়। মাগরিবের নামাজের আগে তারা প্রায় ২শ’ গজ দূরত্বের নতুন বাড়িতে যায়।

সেখানে বাইরের গ্রিল আটকে ভেতর থেকে তিনটি তালা দিয়ে এক রশিতে মা-মেয়ে ঝুলে পড়ে। স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশকে জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে দু’জনের লাশ উদ্ধার করে।

এ সময় সেখান থেকে একটি চিরকুট পায় পুলিশ। চিরকুটে স্ত্রী ও সন্তানের প্রতি স্বামীর অবজ্ঞার কারণে তারা আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে বলে উল্লেখ করে।

চিরকুটে স্বামীকে উদ্দেশ্য করে শাহনাজ লিখেন, ‘তোমার টাকায় যেন কাফনের কাপড় কেনা না হয়। আমাদের কেনা কাফনের কাপড় দিয়ে মাটি দিও।’

পিতাকে উদ্দেশ্য করে মেয়ে প্রিয়তি লিখে, ‘মাকে তুমি বুড়ি বলো, কিন্তু মায়ের টাকাকে তো বুড়ি বলো না। সন্তান হিসেবে মা বলে ডাকো না, দেখো না; ভাতিজির মতো দেখো।’

ওসি মো. মুজিবুর রহমান আরো জানান, মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারের পর মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। সেখানে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ ঘটনায় যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর