কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ভৈরবে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি, স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠে প্রশাসন, ২২ ব্যক্তিকে জরিমানা


 আফসার হোসেন তূর্জা, ভৈরব | ১৫ মার্চ ২০২১, সোমবার, ১০:৩৫ | ভৈরব 


স্বাস্থ্যবিধি অমান্য, উদাসীনতা ও অসচেতনতার কারণে আবারও করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ৪৮ ঘন্টায় কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২০ জন।

এর মধ্যে ভৈরব উপজেলাতেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ জন। এ নিয়ে ভৈরবের সাধারণ জনগণের মাঝে আবারও বাড়ছে আতঙ্ক।

এই উপজেলায় করোনা সংক্রমণের হার বাড়ার মূল কারণ হল অসচেতনতা। মানুষ রাস্তাঘাট, হাটবাজার সহ বিভিন্ন জায়গা মাস্ক ছাড়াই দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

এছাড়া স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা করছে না বেশিরভাগ মানুষ। এসব কারণে কিশোরগঞ্জ জেলার অন্যান্য উপজেলার থেকে ভৈরবে করোনায় আক্রান্তের হার বেশি।

নতুন করে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে থাকায় ভৈরব প্রশাসন আবারও কঠোর হচ্ছে। মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি, স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নিয়মনীতি মেনে চলার ব্যাপারে সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন ভৈরব প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

এর অংশ হিসেবে সোমবার (১৫ মার্চ) ভৈরবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় ভৈরবের দুর্জয় মোড় এলাকায় মাস্ক না পরায় ও স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় ২২ ব্যক্তিকে মোট ৮ হাজার ৭শ’ টাকা অর্থদণ্ড করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা।

এ সময় মানুষের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতেও তৎপর ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন ভৈরব থানা পুলিশের সদস্যরা।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা জানান, ভৈরবে আবারও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিছুদিন মানুষ সরকারি নিয়মনীতি, স্বাস্থ্যবিধি মানলেও এখন আর তা মানছেন না। মাস্ক পরিধান করছেন না। যার কারণে আবারও ভৈরবে সংক্রমণের হার বাড়ছে।

তাই মানুষের মাঝে আবারও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে আজ (সোমবার, ১৫ মার্চ) ভৈরব দুর্জয় মোড়ে মাস্ক না পরায় ও স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় ২২ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মোট আট হাজার সাতশত টাকা অর্থদণ্ড করা হয় এবং তাদের স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতন করা হয়।

জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর