কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


করিমগঞ্জে সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থী ১১০ পিস ইয়াবাসহ আটক



 স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ মার্চ ২০২১, শুক্রবার, ১১:২৯ | করিমগঞ্জ  



কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে ইয়াবা বিক্রয়ের সময় ১১০ পিস ইয়াবাসহ মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া (৩৮) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে হাতেনাতে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলার নিয়ামতপুর ইউনিয়নের দেওপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

ইয়াবাসহ আটক হওয়া মাদক ব্যবসায়ী মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া দেওপুর গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে।

মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া নিয়ামতপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের একজন সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থী হিসেবে পোস্টারিংসহ প্রচারণা চালিয়ে আসছেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর এসআই রাজীব আহমেদ পিপিএম, এএসআই নেছার উদ্দিন, এএসআই মাসেক রব্বানী ও সঙ্গীয় ফোর্স এই অভিযানে অংশ নেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর এসআই রাজীব আহমেদ পিপিএম কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া একজন মাদক ব্যবসায়ী। দীর্ঘদিন ধরে করিমগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী তাড়াইল থানা এলাকায় সে ইয়াবা বিক্রয় করে আসছিল।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যায় কয়েকজন মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য দেওপুর গ্রামের একটি লিচু বাগানের ভেতর পূর্ব পাশের কোনায় কাঁচা রাস্তার পাশে অবস্থান করছিল।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের অবস্থানের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ডিবি পুলিশ সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে সেখানে অভিযান চালায়।

এ সময় ডিবি পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। মো. মাসুদ মিয়া (৪২) নামে অন্য আরেকজন কৌশলে পালিয়ে যায়।

মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়াকে আটকের পর তার দেহ তল্লাসি করে প্যান্টের পকেট থেকে সাদা রংয়ের পলিথিনে মোড়ানো ১১০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় মাদক ব্যবসায়ী মো. আমিনুল ইসলাম হিরু মিয়া ও পালিয়ে যাওয়া মো. মাসুদ মিয়াকে আসামি করে করিমগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর