কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


হুইল চেয়ার পেয়ে আনন্দে কাঁদলেন প্রতিবন্ধী আবদুল হামিদ


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ১ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৯ | সম্পাদকের বাছাই  


ষাটোর্ধ্ব আবদুল হামিদ একজন প্রতিবন্ধী। বাড়ি কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা এগারসিন্দুর ইউনিয়নের তালদর্শী গ্রামে। অসহায় মানুষটি টাকা-পয়সার অভাবে হুইল চেয়ার কিনতে পারছিলেন না। এতে চলাফেরায় তার অসুবিধে হতো।

মাস কয়েক আগে হাজির হন পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এর কক্ষে। উপজেলা চেয়ারম্যানকে খুলে বলেন তার অসহায়ত্বের কথা।

বিষয়টি আমলে নিয়ে তাকে একটি হুইল চেয়ার প্রদানের আশ্বাস দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু।

এ প্রেক্ষিতে আবদুল হামিদকে সরকারি বরাদ্দ থেকে একটি হুইল চেয়ার প্রদান করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে তাঁকে হুইল চেয়ারটি প্রদান করা হয়।

পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে হুইল চেয়ারটি হস্তান্তর করেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু।

এসময় পাকুন্দিয়া পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম আকন্দ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসের অফিস সহকারী মো. দেলোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

হুইল চেয়ার পেয়ে আনন্দে চোখ বেয়ে অশ্রু ঝরে পড়ে প্রতিবন্ধী আবদুল হামিদের।

আবদুল হামিদ বলেন, ‘আমি একজন অসহায় প্রতিবন্ধী মানুষ। টাকার অভাবে হুইল চেয়ার কিনতে পারছিলাম না। এতে কষ্টে চলাফেরা করতাম।

বিষয়টি রেনু ভাইকে জানালে তিনি একটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এখন কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হবে। রেনু ভাইসহ সংশ্লিস্ট সকলের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু বলেন, ‘প্রতিবন্ধী আবদুল হামিদ একজন বয়স্ক ব্যক্তি। একটি হুইল চেয়ারের অভাবে সে কষ্টে চলাফেরা করছিল। বিষয়টি জানতে পেরে সরকারি অর্থায়নে একটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করে দিয়েছি।’




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর