কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে নতুন ২৯ জনের করোনা শনাক্ত, সুস্থ ১৩


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৯:৩৫ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ সংক্রমণের পাগলা ঘোড়া থামছেই না। নমুনা পরীক্ষার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। সর্বশেষ সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাতে প্রকাশিত রিপোর্টে জেলায় নতুন করে ২৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া জেলায় নতুন করে ১৩ জন সুস্থ হয়েছেন।

এই রিপোর্ট অনুযায়ী, জেলায় নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ২৯ জনের মধ্যে ১৩ জনই শনাক্ত হয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায়। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা ছাড়া অন্য ৭ উপজেলায় বাকি ১৬ জন শনাক্ত হয়েছে।

এই ১৬ জনের মধ্যে হোসেনপুর উপজেলায় ১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৩ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ১ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৪ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১ জন, ভৈরব উপজেলায় ৩ জন এবং বাজিতপুর উপজেলায় ৩ জন শনাক্ত হয়েছে।

মোট ২৬৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে এই ২৯ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে হাসপাতালটির প্রি-আইসোলেশনে ভর্তিকৃত জরুরী রোগীসহ রোববার (১৮ এপ্রিল) ও সোমবার (১৯ এপ্রিল) সংগৃহীত মোট ১৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটি-পিসিআর ল্যাবে হাসপাতালটিতে রোববার (১৮ এপ্রিল) সংগৃহীত মোট ৯২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড ইউনিটে বর্তমানে আক্রান্ত ও সন্দেহজনক মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৫১ জন যাদের মধ্যে ৬ জন আইসিইউতে রয়েছেন।

গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ৩ জন ভর্তি হয়েছেন এবং ৯ জন ছাড়পত্র পেয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া ১৩ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ৬ জন, কটিয়াদী উপজেলার ৫ জন এবং বাকি ২ জন মিঠামইন উপজেলার।

এই সময় পর্যন্ত জেলায় মোট ৪৩৪৮ জন শনাক্ত, ৩৮৪৪ জন সুস্থ এবং ৭৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী ৪২৯ জন। তাদের মধ্যে ২৫ জন হাসপাতাল ও ৪০৪ জন হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

শনাক্ত, সুস্থ ও মৃত্যু সব সূচকেই জেলার মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা শীর্ষে রয়েছে। এরপরেই রয়েছে ভৈরব উপজেলা।

বর্তমানে করোনা আক্রান্ত মোট ৪২৯ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৯৮, হোসেনপুর উপজেলায় ১৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১০ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৭ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ২৮ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ২৬ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১৭ জন, ভৈরব উপজেলায় ৭৮ জন, নিকলী উপজেলায় ২ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২৯ জন, ইটনা উপজেলায় ১ জন, মিঠামইন উপজেলায় ১৩ জন এবং অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৭ জন রয়েছেন।

এদিকে গত ৭ ফেব্রুয়ারি ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে সোমবার (১৯ এপ্রিল) পর্যন্ত মোট ৭৫ হাজার ৫৯৪ জন প্রথম ডোজ এবং গত ৮ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ২১ হাজার ৫৭৯ জন দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিয়েছেন।

এর মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ১৫৯ জন প্রথম ডোজ এবং ১ হাজার ৭৪৭ জন দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান এসব তথ্য কিশোরগঞ্জ নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর