কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় ৩০ টাকা দরে পিয়াজ কিনতে উপচেপড়া ভিড়


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৬:৫২ | পাকুন্দিয়া  


হঠাৎ করে বাজারে বেড়েছে পিয়াজের দাম। যে পিয়াজ একদিন আগেও ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি প্রতি বিক্রি হতো রাতারাতি তার দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকায়। হঠাৎ পিয়াজের দাম বাড়ার ফলে বিপাকে পড়েছেন কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার নিম্ন ও মধ্যম আয়ের লোকজন।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর থেকে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর ভ্রাম্যমাণ ট্রাকসেল এ স্বল্পদামে পিয়াজ, ডাল, তেল, ও চিনি বিক্রি কার্যক্রম শুরু হয়।

দ্রুত এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে স্বল্পদামে টিসিবির পিয়াজ কেনার জন্য উপজেলা পরিষদ চত্বরে ভিড় জমান সাধারণ ক্রেতারা।

দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করার পর তারা ৩০ টাকা কেজিতে পিয়াজ কিনতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেন। একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ দুই কেজি পিয়াজ, দুই কেজি ডাল, পাঁচ লিটার তেল ও দুই কেজি চিনি কিনতে পেরেছেন।

টিসিবির ডিলার মো. নূরুল ইসলাম বলেন, ভ্রাম্যমাণ ট্রাকসেলে একদিনের জন্য ২০০ কেজি পিয়াজ, ৫০০ কেজি মশুর ডাল, ৬০০ লিটার সয়াবিন তেল ও ৬০০ কেজি চিনি বরাদ্দ পাওয়া গেছে।

যার মধ্যে প্রতি কেজি পিয়াজ ৩০ টাকায়, প্রতি কেজি ডাল ৫০ টাকায়, প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ৮০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। পিয়াজের বরাদ্দ কম, কিন্তু ক্রেতা বেশি। তাই ভিড়টাও একটু বেশি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান বলেন, নিম্ন আয়ের লোকজনের কথা বিবেচনা করে টিসিবির মাধ্যমে স্বল্পদামে ডাল, তেল, চিনি ও পিয়াজ বিক্রি হচ্ছে।

শুধুমাত্র একদিনের জন্য বরাদ্দ পাওয়া গেছে। বরাদ্দ পেলে আবারও উন্মুক্তভাবে টিসিবির মাধ্যমে এসব পণ্য বিক্রি করার ব্যবস্থা করা হবে।

পাশাপাশি পিয়াজের বাজার স্বাভাবিক রাখতে এসিল্যান্ডের মাধ্যমে বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর