কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মিঠামইনে অতিরিক্ত মদ্যপানে একজনের মৃত্যু


 বিজয় কর রতন, মিঠামইন | ৩০ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ৫:৫০ | মিঠামইন 



কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে তিন বন্ধু মিলে নেশা করতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ্যপানে কামাল মিয়া (৪৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) রাতে মিঠামইন সদর ইউনিয়নের শান্তিপুর ফেরিঘাট এলাকায় নেশা করতে গিয়ে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নেশাগ্রস্ত অবস্থায় দ্বীন ইসলাম নামে এক বন্ধুকে পুলিশ আটক করলেও মুক্তার নামে আরেকজন পালিয়ে যায়।

মারা যাওয়া কামাল মিয়া মিঠামইন সদর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের মৃত কাজী মিয়ার ছেলে।

অপর দুই বন্ধু দ্বীন ইসলাম ও মুক্তার একই গ্রামের বাসিন্দা। তাদের মধ্যে মুক্তার আব্দুল জলিল মিয়ার ছেলে ও দ্বীন ইসলাম আহাম্মদ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, তিন বন্ধু কামাল, মুক্তার ও দ্বীন ইসলাম বৃহস্পাতবার (২৯ এপ্রিল) রাতে মিঠামইনের শান্তিপুর ফেরিঘাটের পশ্চিম পাশে নদীর তীরে নেশা করতে যায়।

নেশা করার এক পর্যায়ে অতিরিক্ত মদ্যপানে সেখানে কামাল লুটিয়ে পড়ে। দুই বন্ধু মুক্তার ও দ্বীন ইসলাম তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ সময় সঙ্গে থাকা দুই বন্ধু মুক্তার ও দ্বীন ইসলাম পালিয়ে যায়।

এ সংবাদ মিঠামইন থানায় পৌঁছালে পুলিশ মুক্তার ও দ্বীন ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের বাড়ি গেলে মুক্তার পালিয়ে যায় এবং দ্বীন ইসলামকে আটক করে থানায় নেয়া হয়।

কিন্তু অতিরিক্ত মদ্যপানে দ্বীন ইসলাম কথা বলতে না পারায় তাকে মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মিঠামইন থানার এসআই নজরুল ইসলাম জানান, কামালের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি এসআই মামুন তদন্ত করছেন।

দ্বীন ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আটক করা হলেও তার শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় চিকিৎসক তাকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলেও এসআই নজরুল ইসলাম জানান।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর