কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


চালু হচ্ছে হাওড় ভাতা


 স্টাফ রিপোর্টার | ৯ মার্চ ২০১৯, শনিবার, ৪:৩৬ | হাওর 


কিশোরগঞ্জ জেলার হাওর অধুষ্যিত তিন উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য হাওড় ভাতা চালু হচ্ছে। গত ৫ মার্চ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন সংযোগ অধিশাখার উপসচিব মো. শাফায়াত মাহবুব চৌধুরী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত পত্র সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে ২০ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে দুর্গম বিবেচনায় দেশের ১৬ উপজেলাকে হাওড়-দ্বীপ-চর উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে কিশোরগঞ্জ জেলার হাওর অধুষ্যিত তিন উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম।

এর পরিপ্রেক্ষিতে এসব উপজেলায় হাওড়/দ্বীপ/চর ভাতা চালু করার জন্য গত ৫ মার্চ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন সংযোগ অধিশাখা থেকে সংশ্লিষ্টদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, যোগাযোগ ব্যবস্থা, শিক্ষা, চিকিৎসা, বিদ্যুৎ ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বিবেচনা করে পার্বত্য এলাকাবহির্ভূত ১৬ উপজেলাকে হাওড়, দ্বীপ, চর উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এমতাবস্থায় পাহাড়ি ভাতার অনুরূপ হাওড়/দ্বীপ/চর ভাতা চালুর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য চিঠিতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

হাওড়, দ্বীপ, চর উপজেলা হিসেবে ঘোষিত ১৬টি উপজেলা হলো- কিশোরগঞ্জের ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম। চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, নোয়াখালীর হাতিয়া, সিরাজগঞ্জের চৌহালী, কুড়িগ্রামের রৌমারী ও চর রাজিবপুর, পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী ও ভোলার মনপুরা। এ ছাড়া সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা, শাল্লা ও দোয়ারাবাজার এবং হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ ও নেত্রকোনার খালিয়াজুরী হাওড়-দ্বীপ-চর উপজেলার মধ্যে পড়েছে।

এ সংক্রান্ত সংবাদ: দুর্গম হিসেবে ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রামকে হাওর-দ্বীপ-চর উপজেলা ঘোষণা




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর