কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনা শনাক্ত, ‍মৃত্যু ও সুস্থসহ সব সূচকেই শীর্ষে সদর


 আশরাফুল ইসলাম, প্রধান সম্পাদক, কিশোরগঞ্জনিউজ.কম | ৩০ আগস্ট ২০২০, রবিবার, ১০:৫৬ | এক্সক্লুসিভ 


কিশোরগঞ্জ জেলায় সর্বশেষ রোববার (৩০ আগস্ট) দিবাগত রাতে প্রকাশিত রিপোর্ট পর্যন্ত মোট ২৫২৬ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মোট ২২৫০ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া এই সময়ে মোট ৪৫ জন মারা গেছেন।

জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে বর্তমানে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার। নতুন সংক্রমণ, মৃত্যু, সুস্থ ও আক্রান্তসহ সব সব সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে সদর উপজেলা।

সর্বমোট ৮৫৮ জন শনাক্ত, সর্বমোট ৭৩৯ জন সুস্থ, সর্বমোট ১৪ জনের মৃত্যু ও সর্বমোট ১০৫ জন বর্তমানে আক্রান্ত নিয়ে এই চার সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

এই সময়ে জেলার মধ্যে সর্বোচ্চ নমুনাও সংগৃহীত হয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায়। রোববার (৩০ আগস্ট) পর্যন্ত মোট ৭ হাজার ১৭৫টি নমুনা সংগৃহীত হয়েছে এ উপজেলায়।

তবে সর্বোচ্চ ১৪ জনের মৃত্যু রয়েছে জেলার ভৈরব উপজেলারও। সংক্রমণ শুরুর দিকে ভৈরবে শনাক্ত ও মৃত্যুর হার বেশি থাকলেও দিন দিনই তা কমে এসেছে।

মোট শনাক্ত, সুস্থ, বর্তমানে আক্রান্ত ও নমুনা সংগ্রহ এই সবকটি সূচকেই জেলায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভৈরব উপজেলা।

ভৈরব উপজেলায় সর্বমোট ৬০৭ জন শনাক্ত, সর্বমোট ৫৬২ জন সুস্থ, সর্বমোট ১৪ জনের মৃত্যু ও সর্বমোট ৩১ জন বর্তমানে আক্রান্ত রয়েছেন।

রোববার (৩০ আগস্ট) পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৩১৭টি নমুনা সংগৃহীত হয়েছে এ উপজেলায়।

করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্তের ক্রম অনুযায়ী, বাজিতপুর উপজেলায় ২০৭ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৪৮ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৩৯ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১৩২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১২৩ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১০৬ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৬৩ জন, নিকলী উপজেলায় ৫১ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৪২ জন, ইটনা উপজেলায় ৩৩ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১৭ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

সুস্থতার ক্রম অনুযায়ী, বাজিতপুর উপজেলায় ১৮৪ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৩০ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১২৫ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১২৪ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১১০ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৯৫ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৫৫ জন, নিকলী উপজেলায় ৪৩ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৩৭ জন, ইটনা উপজেলায় ৩২ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১৪ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ নেগেটিভ হয়ে সুস্থ হয়েছেন।

মৃত্যুর ক্রম অনুযায়ী, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন, নিকলী উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, হোসেনপুর উপজেলার ২ জন, কটিয়াদী উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, ইটনা উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার পাকুন্দিয়া ও অষ্টগ্রাম এই দুই উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কেউ মারা যাননি।

বর্তমানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ক্রম অনুযায়ী, বাজিতপুর উপজেলায় ২১ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৬ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৪ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১০ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১০ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৬ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৬ জন, নিকলী উপজেলায় ৫ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৪ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৩ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার একমাত্র উপজেলা হিসেবে ইটনা উপজেলায় বর্তমানে করোনা আক্রান্ত কোন রোগী নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর