কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

‘তত্ত্বাবধায়কের আন্তরিকতায় পাল্টে গেছে হাসপাতালের সেবার পরিবেশ’


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার, ৬:৪৭ | স্বাস্থ্য 


কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়নে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের সাথে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ অক্টোবর) ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল সম্মেলন কক্ষে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নবনিযুক্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. সুলতানা রাজিয়া-এর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও আন্তরিকতায় বর্তমানে হাসপাতালটি সেবা বান্ধব প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে মতবিনিময় সভায় টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মো. ফজলে এলাহী বর্তমান পর্যবেক্ষণ ও কিছু সুপারিশ উপস্থাপন করেন।

পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, ইমার্জেন্সিতে সেবার গতি বৃদ্ধি, ডাক্তারদের উপস্থিতি ও সেবার ধরনে উন্নতি, রোগির খাবারের মানের উন্নতি, সকল ওয়ার্ড পূর্বের তুলনায় পরিচ্ছন্ন, হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতা বৃদ্ধি, অনুসন্ধান কক্ষটি চালুকরণসহ উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে।

আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে আরও পরিবর্তনের সুযোগ রয়েছে। যেমন, হাসপাতালের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা, বর্জ্য অপসারণ ব্যবস্থা গতিশীল করা, মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ ও দালাল চক্র নিয়ন্ত্রণ এবং অতিরিক্ত এটেন্ডেন্স নিয়ন্ত্রণে সুদৃষ্টি প্রদানসহ সনাকের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সুপারিশ করা হয়।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. রুহুল আমিন খান।

অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. সজল কুমার সাহা, জেলা বিএমএ-এর সাধারণ সম্পাদক ডা. এম এ ওয়াহাব বাদল, সনাক সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলু।

অতিথিদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের  সহকারী পরিচালক ডা. রমজান মাহমুদ এবং সনাক সদস্য অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন ফারুকী।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সুলতানা রাজিয়ার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সনাক সদস্য ম.ম জুয়েল। তিনি স্বাগত বক্তব্যে হাসপাতালের সেবার মানের উন্নয়নে সনাকের বিভিন্ন কর্মসূচিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতামূলক আচরণের সুফল তুলে ধরে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সনাক সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলু সনাকের কাজে সর্বদা সর্বাত্মক অংশগ্রহণ ও সহযোগিতা করায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণে সহযোগিতা করাই প্রকৃত বন্ধুর কাজ। আমরা সবসময় আপনাদের বন্ধু হিসেবেই পাশে আছি ও থাকব।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. রুহুল আমিন খান বলেন, দীর্ঘদিন সমন্বয়হীনতা ছিলো। তবে খুব দ্রুত আমরা বসে রোগির চাপ কমাতে সকল পরিকল্পনা নিব এবং পরবর্তী সভার আগে আপনারা দৃশ্যমান ফলাফল দেখতে পারবেন।

সভাপতির বক্তব্যে ডা. সুলতানা রাজিয়া সনাকের পর্যবেক্ষণ ও সুপারিশমালার প্রশংসা করে বলেন, সনাকের পর্যবেক্ষণ প্রতিষ্ঠানকে সমৃদ্ধ করে, নজর এড়িয়ে যাওয়া বিষয়গুলো চিহ্নিত করে এর সমাধানের পথ খুলে দেয়। সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও চেষ্টা করছি, সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজের পরিবেশের উন্নয়ন করতে। তবে অতিরিক্ত রোগির চাপে কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে না। শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ উদ্বোধন না হওয়া পর্যন্ত সমস্যা থেকেই যাবে।

মতবিনিময় সভায় সকল বিভাগের কনসালটেন্ট, নার্স প্রতিনিধি, ওয়ার্ড ব্যবস্থানা প্রতিনিধি, সনাক সদস্য, ইয়েস গ্রুপ, টিআইবি কর্মকর্তাসহ মোট ২৬ জন উপস্থিত ছিলেন।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmails.com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ