কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


হোসেনপুরে বাড়িতে গৃহবধূর লাশ ফেলে রেখে স্বামী-দেবর আত্মগোপনে


 মিছবাহ উদ্দিন মানিক | ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার, ৩:৩৯ | হোসেনপুর 


হোসেনপুরে মাহমুদা আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গৃহবধূর স্বামী ও দেবর মিলে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের ভাই রফিকুল ইসলাম হালিম।

নিহত গৃহবধূ মাহমুদা আক্তার উপজেলার টানসিদলা গ্রামের অটোবাইক চালক নাজমুল মিয়ার স্ত্রী। ঘটনার পর গৃহবধূর লাশ বাড়িতে ফেলে রেখে স্বামী নাজমুল ও দেবর তোফায়েল গা-ঢাকা দিয়েছে।

গৃহবধূ মাহমুদা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে খবর পেয়ে পুলিশ মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার টানসিদলা গ্রামের নাজমুল মিয়ার বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে লাশ পাঠানো হয়।

অভিযুক্ত স্বামী নাজমুল মিয়া ও দেবর তোফায়েল উপজেলার টানসিদলা গ্রামের মৃত রুকুন উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের ভাই রফিকুল ইসলাম হালিম বলেন,  আমার বোন মাহমুদা আক্তারকে স্বামী ও দেবর মিলে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তারা লাশ ঝুলানোর চেষ্টা করে।

এ ব্যাপারে হোসেনপুর থানার এসআই আহাদ হোসেন জানান, লাশের ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর এটি হত্যা না আত্মহত্যা জানা যাবে।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর