কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

কুলিয়ারচরে ব্যক্তি উদ্যোগে নির্মিত শহিদ মিনারের ফলক উন্মোচন


 মুহাম্মদ শাহ আলম, স্টাফ রিপোর্টার, কুলিয়ারচর | ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার, ৭:০৩ | কুলিয়ারচর 


আজকের শিশু আগামী দিনের ধারক, বাহক, জাতির ভবিষ্যৎ প্রজন্ম। তারাই আগামী দিনে সমাজ উন্নয়ন থেকে শুরু করে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নেবে। তাই শৈশব থেকে যাতে তারা দেশাত্ববোধে উদ্ধুদ্ধ হয়, সে জন্যে কুলিয়ারচরের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ব্যক্তি উদ্যোগে শহিদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছে।

উপজেলার ৩৫নং মনোহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে শহিদ মিনারটি নির্মাণ করেছেন বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. নাজমুল ইসলাম খাঁন। শহিদ মিনারটি নির্মাণের ব্যয় বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি নিজে ছাড়াও তার পিতা, ভাইসহ  পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সংগ্রহ করেছেন।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নব-নির্মিত এ শহিদ মিনারের ফলক উন্মোচন করা হয়েছে। ফলক উন্মোচন করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জ্যোতিস্বর পাল।

এসময় অন্যদের মধ্যে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির নব-নির্বাচিত সভাপতি মো. নাজমুল ইসলাম খাঁন ছাড়াও জেলা পরিষদ সদস্য ও সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. জিল্লুর রহমান, রাজধানীর উত্তরা থানার ওসি আলী হোসেন খাঁন জুয়েল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন লিটন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুল আজিজ, রামদী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. আলাল উদ্দিনসহ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য, শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক, ছাত্র-ছাত্রী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কোন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই প্রথম শহিদ মিনার নির্মিত হওয়ায়  স্থানীয় লোকজনসহ অতিথিবৃন্দ এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানান।

এলাকাবাসী জানান, আমাদের মাতৃভাষা বাংলা। প্রতি বছর ২১শে ফেব্রুয়ারিকে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত আমাদের এলাকার অনেক শিক্ষার্থী ২১শে ফেব্রুয়ারির মর্যাদা ও গুরুত্ব কি সেটি জানে না। নাজমুল ইসলাম খাঁনের এমন উদ্যোগে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা মাতৃভাষা এবং মাতৃভাষার গুরুত্ব ও মর্যাদা সম্পর্কে ধারণা লাভ করতে পারবে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নাজমুল ইসলাম খাঁন বলেন, সারা বিশ্বব্যাপী ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। কিন্তু মনোহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহিদ মিনার না থাকায় শিক্ষার্থীরা শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারে না। তাই তিনি স্কুল প্রাঙ্গণে মনোরম পরিবেশে শহিদ মিনার তৈরি করার উদ্যোগ নেন।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmails.com
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি: সাইফুল হক মোল্লা দুলু
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ