www.kishoreganjnews.com

কানকাটি গণহত্যায় একই পরিবারের ছয় শহীদ



[ স্টাফ রিপোর্টার | ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, সোমবার, ১২:০০ | মুক্তিযুদ্ধ ]


আজ (১১ই সেপ্টেম্বর) শোকাবহ কানকাটি গণহত্যা দিবস। মুক্তিযুদ্ধের সময় এই দিনে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কর্শাকড়িয়াইল ইউনিয়নের কানকাটি গ্রামের সুরেশ চন্দ্র সরকারের পরিবারের ৬ সদস্যসহ ৭ জনকে হানাদার পাকসেনা ও তাদের দোসর রাজাকারেরা নির্মমভাবে হত্যা করে। সুরেশ চন্দ্র সরকারের অপরাধ ছিল, তার ছেলে তৎকালীন ছাত্রনেতা সুধীর চন্দ্র সরকার মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিলেন। দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে আজ কানকাটি গ্রামে এক স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হবে।

শহীদ সুরেশ চন্দ্র সরকারের ছেলে বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও মুক্তিযোদ্ধা সুধীর চন্দ্র সরকার জানান, একাত্তরের ১১ই সেপ্টেম্বর ভোরবেলায় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী স্থানীয় রাজাকার, আলবদর ও আলশামস বাহিনীর সহায়তায় তাদের কানকাটি গ্রামে হানা দিয়ে ব্যাপক অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট চালায়। এক পর্যায়ে তারা তার বাবা সুরেশ চন্দ্র সরকার, সুরেশ সরকারের ভাতিজা মধুসূধন নন্দী, দুই নাতি হর্ষবর্ধন সরকার ও বিশ্ববর্ধন সরকার, দুই মামাত ভাই জ্ঞানচন্দ্র নন্দী ও জয়চন্দ্র নন্দী এবং প্রতিবেশী আব্দুল জব্বারকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তাদেরকে পার্শ্ববর্তী ধুলদিয়া এলাকার রেলসেতুর ওপর দাঁড় করিয়ে নির্বিচারে গুলি করে সেতুর নীচে বর্ষার স্রোতের পানিতে ফেলে দেয়। সেদিনের শহীদদের একজনেরও লাশ স্বজনরা খুঁজে পাননি। তার মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়ার অপরাধেই তার বাবাসহ অন্য স্বজনদের সেদিন নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছিল। প্রতি বছর এই দিনটিকে ‘কানকাটি গণহত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]



প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম

সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ

সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার

কিশোরগঞ্জ-২৩০০

মোবাইল: +৮৮০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮

ইমেইল: kishoreganjnews247@gmail.com

©All rights reserve www.kishoreganjnews.com