কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

করিমগঞ্জে হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা



 স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ মে ২০১৮, শনিবার, ৭:৪৯ | করিমগঞ্জ  


করিমগঞ্জে একটি হত্যা মামলার ২নং আসামিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকাল সোয়া ৩টার দিকে উপজেলার দেহুন্দা ইউনিয়নের চরদেহুন্দা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটে।

নিহতের নাম সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়া (৫০)। তিনি চরদেহুন্দা গ্রামের মৃত আবদুল হামিদের ছেলে এবং পার্শ্ববর্তী তাড়াইল উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের জটারকান্দা গ্রামের কৃষক দুলাল মিয়া (৫০) হত্যা মামলার ২নং আসামি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত বছরের ২রা ফেব্রুয়ারি সকালে সকালে করিমগঞ্জ উপজেলার দেহুন্দা গোদারাঘাট বউবাজার থেকে বাজার করে বাড়ি ফেরার পথে চরদেহুন্দা গ্রাম এলাকায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হন জটারকান্দা গ্রামের কৃষক দুলাল মিয়া। হামলার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে কুপিয়ে দুলাল মিয়ার মাথা ও হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম করা ছাড়াও তার দুই পা-এর রগ কেটে দেয়া হয়। খবর পেয়ে স্বজনেরা মুমূর্ষু অবস্থায় দুলাল মিয়াকে উদ্ধার করে প্রথমে করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে ৭ই ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর বক্ষব্যাধি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

দুলাল মিয়াকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে হামলার ঘটনার পরদিন ৩রা ফেব্রুয়ারি করিমগঞ্জ থানায় পুত্র আলআমিন বাদী হয়ে মামলা করেন। সেই মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা সোহরাব উদ্দিনকে প্রধান আসামি এবং তার ছোট ভাই সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়াকে দ্বিতীয় আসামি করা হয়। মামলার আসামিরা সবাই বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। কিন্তু কৃষক দুলাল হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

এ পরিস্থিতিতে শনিবার দুপুরে সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়া পাশের চাচীর বাড়িতে ঘুরতে যান। সেখানে অবস্থান করার সময়ে বিকাল সোয়া ৩টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়ার উপর হামলা চালায়। এ সময় উপর্যুপরি কুপিয়ে সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়াকে গুরুতর আহত করে ফেলে রেখে যায় হামলাকারীরা।

খবর পেয়ে স্বজনেরা মুমূর্ষু অবস্থায় সঞ্জু ওরফে ছোট্ট মিয়াকে উদ্ধার করে করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করে। কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

করিমগঞ্জ থানার ওসি মো. মুজিবুর রহমান জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]


এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮, ০১৮৪১ ৮১৫৫০০
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ