kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

শোলাকিয়ায় নজিরবিহীন নিরাপত্তা, ড্রোন মহড়া



 বিশেষ প্রতিনিধি | ১৫ জুন ২০১৮, শুক্রবার, ৭:৩৪ | বিশেষ সংবাদ 


ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে এবারের ১৯১তম ঈদুল ফিতরের জামাত উপলক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে নজিরবিহীন নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হচ্ছে শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানকে। নিরাপত্তা পরিকল্পনায় প্রথমবারের মতো যুক্ত করা হয়েছে ড্রোন। শুক্রবার (১৫ জুন) বিকালে ড্রোন মহড়াও অনুষ্ঠিত হয়েছে শোলাকিয়ার আকাশে। নিরবচ্ছিন্ন নজরদারির জন্য শনিবারের ঈদজামাতে থাকবে ড্রোনের সতর্ক নজরদারি।

এছাড়া ঈদ জামাতকে নির্বিঘ্ন ও শান্তিপূর্ণ করতে পুলিশের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা পরিকল্পনা। আরো এক সপ্তাহ আগেই ঈদগাহ ময়দানের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করছে পুলিশ প্রশাসন। পুলিশ ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এক হাজারেরও বেশি সদস্য ঈদগাহ মাঠকে ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরি করছে।

পুরো এলাকায় বসানো হচ্ছে কোজ সার্কিট ক্যামেরা। পুরো মাঠ একাধিকবার সুইপিং করা ছাড়াও মাঠে ঢোকার ২১টি প্রবেশ পথের মধ্যে মুসল্লিদের জন্য ছয়টি প্রবেশপথ উন্মুক্ত রাখা হচ্ছে। সেসব প্রবেশপথে স্থাপিত আর্চওয়ে দিয়ে মুসল্লিদের ঢুকতে হবে ঈদগাহ ময়দানে। এর আগে আরো অন্তত তিন দফা মেটাল ডিটেক্টরে মুসল্লিদের দেহ তল্লাসি করা হবে। নিরাপত্তার স্বার্থে ঈদগাহে আগত মুসল্লিদের কেবল পাতলা জায়নামাজ ছাড়া ছাতা বা কোনো ধরণের ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে দেওয়া হবেনা।

পুলিশের পাশাপাশি ঈদগাহ ময়দানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা তদারকি করছে র‌্যাব। ঈদগাহ ময়দানকে ঘিরে মোতায়েন করা হবে বিপুল সংখ্যক র‌্যাব সদস্য। মোতায়েন করা হচ্ছে পাঁচ প্লাটুন বিজিবি।

সুষ্ঠুভাবে ঈদজামাত আদায়ের লক্ষে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ ফোর্সকে আইনগত দিকনির্দেশনা দেয়াসহ ম্যাজিস্ট্রেরিয়াল দায়িত্ব পালনের জন্য ঈদগাহ মাঠের বিভিন্ন পয়েন্ট ও এলাকায় ১৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছেন জেলা প্রশাসন।

মাঠে স্থাপন করা হয়েছে ছয়টি ওয়াচ টাওয়ার। এর চারটিতে পুলিশ বাহিনী ও দুইটিতে র‌্যাব বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়ে ঈদজামাতের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা তদারকি করবেন। এছাড়া সর্বোচ্চ নিশ্ছিন্দ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি।

শান্তিপূর্ণভাবে ঈদজামাত অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে মাঠের বাইরে, মাঠের ভেতরে ও প্রবেশ পথে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মো. মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম।

নিরাপত্তা তদারকির অংশ হিসেবে শুক্রবার (১৫ জুন) বিকালে পুলিশ সুপার ঈদগাহ মাঠ পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সদস্যদের তিনি ব্রিফ করেন।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল ইসলাম এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শফিকুল ইসলামও বক্তব্য রাখেন।

তারা তাদের বক্তব্যে শোলাকিয়ার ঈদ জামাত শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের জন্য পূর্ণ মনোযোগের সঙ্গে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্য, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান ও আরআরএফ সদস্যসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশনা দেন।

পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম জানান, এবার মাঠের বাইরে, মাঠের ভেতরে ও প্রবেশ পথে সর্বোচ্চ ও সুচারূ নিরাপত্তা পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। উড়ন্ত ড্রোন থেকে নজরদারি ছাড়াও প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে। এছাড়া নিরাপত্তা জোরদারের জন্য মাঠের ভিতর-বাহিরে পোশাক ও সাদা পোশাকে অন্যান্য বারের থেকেও বেশিসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। সার্বিক প্রস্তুতির বিবেচনায় নির্বিঘ্নে মুসল্লিগণ ঈদুল ফিতরের ঐতিহ্যবাহী এই জামাতে অংশ নিতে পারবেন বলে পুলিশ সুপার আশা প্রকাশ করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ