কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


তাড়াইলে ২৫ হাজার ৮০৩ শিশু খাবে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল


 স্টাফ রিপোর্টার | ১২ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার, ৫:৫৪ | তাড়াইল  


জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন দ্বিতীয় রাউন্ডে তাড়াইল উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ২১টি ওয়ার্ডে একটি স্থায়ী কেন্দ্র ও ১৬৮টি অস্থায়ী কেন্দ্রে ২৫ হাজার ৮০৩ জন ৫ বছরের কম বয়সী শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

এই ১৬৯টি কেন্দ্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ৩৩৮ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের মাধ্যমে শিশুদের ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ৬৩ জন সুপারভাইজার সার্বক্ষণিক তদারকিতে এবং ৭ জন কর্মকর্তা মনিটরিং ও সুপারভিশনের দায়িত্বে থাকবেন।

জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন দ্বিতীয় রাউন্ড উপলক্ষে আয়োজিত উপজেলা অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভায় এসব তথ্য জানানো হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়োজনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সভাকক্ষে শনিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোল্যা মো. মতিউর রহমান এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা  আলহাজ্ব মো. আজিজুল হক ভূঞা মোতাহার।

উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মো. আবদুর রউফ তালুকদারের সঞ্চালনায় সভায় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. ছাইদুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকিয়া বেগম, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ বদরুল হাসান রনি, মেডিকেল অফিসার ডাঃ মো. ফিরোজ মিঞা, তাড়াইল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আনজুমান ইসলাম, তাড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি দেওয়ান ফারুক দাদ খান, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, আগামী ১৯ জানুয়ারি থেকে সারা দেশের ন্যায় তাড়াইলে শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। যাতে কোনো শিশু এই ক্যাপসুল খাওয়া থেকে বাদ না পড়ে সেদিকে সকলের নজর রাখার আহ্বান জানানো হয়।

তাড়াইলে বিভিন্ন গুচ্ছগ্রাম-আবাসনে বুথ বসানোর মাধ্যমে শিশুদের ক্যাপসুল খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হবে বলেও সভায় জানানো হয়।



[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর