কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ফায়ার ফাইটার সোহেল রানার পরিবারকে সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস এমপি তৌফিকের


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার, ৬:০৪ | বিশেষ সংবাদ 


রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডে আটকে পড়াদের বাঁচাতে গিয়ে জীবন উৎসর্গকারী ফায়ারম্যান সোহেল রানার পরিবারের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য রাষ্ট্রপতির বড় ছেলে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকালে ইটনা উপজেলার চৌগাংগা ইউনিয়নের কেরুয়ালা গ্রামে সোহেল রানার বাড়িতে গিয়ে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি পরিবারটির পাশে থেকে সব ধরণের সহায়তার আশ্বাস দেন।

ফায়ারম্যান সোহেল রানার পরিবারের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়ে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি বলেন, সোহেল রানা একজন বীর। অন্যের জীবন বাঁচাতে গিয়ে অকুতোভয় এই বীর অকাতরে নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়েছে। হাওরের এই বীর বালকের পরিবারের পাশে আগেও ছিলাম, এখনও আছি, ভবিষ্যতেও থাকব।

রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি ফায়ার ফাইটার সোহেল রানার বাবা-মা ও ভাই-বোনদের সান্ত্বনা জানান। এছাড়া তিনি সোহেল রানার কবর জিয়ারত করে তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

এ সময় ইটনা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী কামরুল হাসান, কিশোরগঞ্জ জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাচ্চু প্রমুখ ছাড়াও আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ মার্চ ২৩ তলার বনানীর এফআর টাওয়ারে আগুন লাগার পর আটকে পড়াদের উদ্ধারে অংশ নিয়েছিলেন ফায়ারম্যান সোহেল রানা। উদ্ধারের এক পর্যায়ে ওভারলোড দেখায় লেডারটি। পরে ওজন কমাতে মই বেয়ে নামতে গিয়ে গুরুতর আহত হন সোহেল রানা।

তারপর থেকে সিএমএইচে আইসিইউতে ভেন্টিলেশনে রেখে তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। অবস্থার আশানুরূপ উন্নতি না হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গত ৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে সোহেল রানাকে সিঙ্গাপুর পাঠানো হয়।

কিন্তু চিকিৎসকদের প্রাণান্ত চেষ্টা আর দেশবাসীর অফুরান প্রার্থনাকে ব্যর্থ করে দিয়ে তিনি চলে যান না ফেরার দেশে। গত ৮ এপ্রিল বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৭ মিনিটে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ফায়ার ফাইটার সোহেল রানা।

পরে মরদেহ দেশে আনার পর গত ৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় কেরুয়ালা গ্রামের বাড়িতে সোহেল রানাকে সমাহিত করা হয়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর