কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় মাদকাসক্ত ছেলেকে জেলে দিলেন পিতা


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ২৮ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৩২ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় হারুন অর রশীদ সুজন মিয়া (২২) নামে এক মাদকাসক্ত ছেলেকে জেলে দিয়েছেন তারই পিতা ওয়ায়েজ উদ্দিন। বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় ভ্রাম্যমাণ আদালত ছয় মাসের জেল দিয়ে তাকে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠায়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান। সুজন মিয়ার বাড়ি উপজেলার এগারসিন্দুর ইউনিয়নের চরখামা গ্রামে।

জানা যায়, গত চার বছর ধরে সুজন মিয়া মাদকাসক্ত হয়ে নেশার টাকা জোগাড় করতে প্রতিদিনই চুরি করে বাড়ির ঘর থেকে বিভিন্ন জিনিসপত্র বিক্রি করে দেয়। এতে বাধা দিলে সে তার পিতা-মাতাকে প্রায়ই মারধর করতো।

ছেলের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে পিতা ওয়ায়েজ উদ্দিন নিজে তাকে পাকুন্দিয়া থানায় নিয়ে গিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেন। পরে রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে ছয় মাসের জেল দেন।

এ সময় পাকুন্দিয়া থানার এএসআই আনোয়ারুল ইসলাম ও পিতা ওয়ায়েজ উদ্দিনসহ তার পরিবারের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

পিতা ওয়ায়েজ উদ্দিন বলেন, ২০১০ সালে সুজন এসএসসি পাশ করে। বন্ধুদের পাল্লায় পরে সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। নেশার টাকা জোগাড় করতে চুরি করে বাড়ির আসবাবপত্রসহ ছোটখাটো জিনিসপত্র বিক্রি করতে থাকে। এতে বাধা দিলে বাড়ির লোকজনকে সে প্রায়ই মারধর করতো।

তাকে ভাল করতে অনেক বুঝানো হয়েছে। কিন্তু সে এ পথ থেকে ফিরে আসেনি। তার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে আইনের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান জানান, মাদকাসকক্ত প্রমাণিত হওয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮এর ৪২ ধারায় তাকে ছয় মাসের জেল দেওয়া হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর