kishoreganjnews.com:কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা

কুড়িয়ে পাওয়া ১০ হাজার টাকা মালিককে ফিরিয়ে দিলেন দরিদ্র নৈশপ্রহরী



 স্টাফ রিপোর্টার | ৩১ মার্চ ২০১৮, শনিবার, ৭:০৮ | করিমগঞ্জ  


ছবি: খায়রুল বাশার মহসীন এর ফেসবুক থেকে নেয়া।

সততার অনন্য নজির রাখলেন আসাদ মিয়া নামের এক দরিদ্র নৈশপ্রহরী। রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া ১০ হাজার টাকা তিনি অনেক চেষ্টায় মালিককে খোঁজে বের করে তার হাতে তুলে দিয়েছেন। আসাদের এই সততায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, মো. আসাদ মিয়া করিমগঞ্জ উপজেলার ৭০নং মাছিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী কাম অফিস সহায়ক। তিনি উপজেলার জাফরাবাদ ইউনিয়নের পুর্বজাফরাবাদ গ্রামের মো. আলতু মিয়ার ছেলে।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে আমলীতলা বাজারের পাকা সড়কের ওপর তিনি ১০০০ হাজার ১০টি নোট পড়ে থাকতে দেখেন। সেই টাকা উদ্ধার করে টাকার প্রকৃত মালিকের খোঁজ করেন আসাদ। এজন্যে হন্যে হয়ে তিনি টাকার মালিককে খুঁজে বেড়ান।

টাকার মালিককে না পেয়ে বিষয়টি তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষক খায়রুল বাশার মহসীনকে জানান। খায়রুল বাশার মহসীন টাকা পাওয়ার বিষয়টি নিজের ফেসবুক আইডিতে প্রচার করে প্রকৃত মালিকের সন্ধ্যান চান। এতেই থেমে থাকেননি এই মানুষ গড়ার কারিগর। নিজের গাঁটের টাকা খরচ করে মাইকিং করান পুরো এলাকা এমনকি কিশোরগঞ্জ জেলা শহর ও করিমগঞ্জ উপজেলা সদরে।

অব্যাহত এই প্রচারণার সূত্র ধরে হারানো টাকার প্রকৃত মালিক প্যাসিফিক ফার্মাসিউটিকেলস এর মেডিকেল রিপ্রেজেনটেটিভ মো. ওয়ালিউল্লাহর নজরে আসে টাকা পাওয়ার বিষয়টি। তিনি ছুটে যান আসাদের কাছে। তথ্যপ্রমাণ দিয়ে ওয়ালিউল্লাহ প্রমাণ করেন হারানো টাকাটা তার ছিল।

টাকার প্রকৃত মালিককে পেয়ে হাসি ফুটে আসাদের মুখে। বিকাল ৩টার দিকে টাকার মালিক ওয়ালিউল্লাহর হাতে টাকা তুলে দিয়ে স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়েন আসাদ।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর থেকেই অনন্য সততার জন্য নানা মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন দরিদ্র নৈশপ্রহরী আসাদ।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর



















সেগুনবাগিচা, গৌরাঙ্গবাজার, কিশোরগঞ্জ-২৩০০
মোবাইল:০ ১৮১৯ ৮৯১০৮৮
kishoreganjnews247@gmail.com
Web: www. kishoreganjnews.com
প্রধান সম্পাদক: আশরাফুল ইসলাম
সম্পাদক: সিম্মী আহাম্মেদ