কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে নতুন ২৯ জনের করোনা শনাক্ত, আরো একজনের মৃত্যু, সুস্থ ৮০


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ২৮ জুন ২০২০, রবিবার, ১১:৫৬ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ রোববার (২৮ জুন) দিবাগত রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে জেলায় নতুন করে ২৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফলে এ পর্যন্ত জেলার ১৩ উপজেলায় এক হাজার ৪০৭ জনের শরীরে ধরা পড়েছে করোনা। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭৪৩ জন। মারা গেছেন ২৪ জন।

রোববার (২৮ জুন) দিবাগত রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে জেলায় নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ২৯ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১ জন, তাড়াইল উপজেলায় মৃত ব্যক্তিসহ ২ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৫ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১ জন, নিকলী উপজেলায় ১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৩ জন ও মিঠামইন উপজেলায় ৩ জন রয়েছেন।

এছাড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলায় নতুন করে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি জেলার তাড়াইল উপজেলার বাসিন্দা। তার নাম মাজহারুল হক রানা (৬৫)।

অন্যদিকে নতুন করে জেলায় ৮০ জন করোনাভাইরাস মুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন। নতুন সুস্থ হওয়া ৮০ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ১ জন ও ভৈরব উপজেলার ৬৫ জন রয়েছেন।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রি-আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তিকৃত জরুরী রোগীসহ সোমবার (২২ জুন), মঙ্গলবার (২৩ জুন) ও শনিবার (২৭ জুন) সংগৃহীত ১৮৮ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়।

এই ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শনিবার (২৭ জুন) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১৩৭৮ জন। রোববার (২৮ জুন) নতুন করে আরো ২৯ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪০৭ জনে।

এদিকে জেলায় করোনাভাইরাস থেকে নতুন করে ৮০ জন সুস্থ হয়েছেন। এর আগে জেলায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল ৬৬৩ জন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৪৩ জন।

বর্তমানে অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ২ জন করোনা পজেটিভসহ জেলায় মোট ৬৪২ জন করোনা রোগী এবং ৯ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতাল ও নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন।

এর মধ্যে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে তিনজন কোভিড-১৯ পজেটিভ রোগী ভর্তি রয়েছেন।

রোববার (২৮ জুন) দিবাগত রাত ১২টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, প্রকাশিত ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে মোট ২৯ জনের পজেটিভ ও ১৫৮ জনের নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া পুরাতন কোভিড-১৯ পজেটিভ একজনের আবারো পজেটিভ এসেছে।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া এই ২৯ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১ জন, তাড়াইল উপজেলায় মৃত ব্যক্তিসহ ২ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৫ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১ জন, নিকলী উপজেলায় ১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৩ জন ও মিঠামইন উপজেলায় ৩ জন রয়েছেন।

ফলে রোববার (২৮ জুন) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ১৪০৭ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ২৮৪ জন, হোসেনপুর উপজেলার ৩২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৯৩ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৭৫ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ৬৪ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৭৭ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৯৩ জন, ভৈরব উপজেলায় ৪৯৭ জন, নিকলী উপজেলায় ২৩ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৯৬ জন, ইটনা উপজেলায় ২৮ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৩৬ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ২৪ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। সর্বশেষ কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (২৮ জুন) সকালে তাড়াইলের প্যাথলজি ব্যবসায়ী মাজহারুল হক রানা (৬৫) মারা গেছেন।

উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ৫ জন, হোসেনপুর উপজেলার ১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ১ জন, ভৈরব উপজেলার ১০ জন, নিকলী উপজেলার ১ জন, বাজিতপুর উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর