কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


“জলবায়ু পরিবর্তন: প্রভাব মোকাবেলায় করণীয়” বিষয়ে অনলাইন ক্যাম্পেইন


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ১০:৩০ | বিশেষ সংবাদ 


টিআইবি’র অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) কিশোরগঞ্জ এর উদ্যোগে কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সুনামগঞ্জ, শ্রীমঙ্গল ও সিলেট অঞ্চলের ইয়েস সদস্য ও তরুণ শিক্ষর্থীদের অংশগ্রহণে জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রভাব মোকাবেলায় করণীয় বিষয়ে একটি অনলাইন ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত এই অনলাইন ক্যাম্পেইনে পাঁচটি সনাক অঞ্চল থেকে ১০০ জন ইয়েস ও তরুণ শিক্ষর্থী অংশগ্রহণ করেন।

সনাক কিশোরগঞ্জের সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলু ক্যাম্পেইন কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র সাধারণ পর্ষদের সদস্য অ্যাডভোকেট মায়া ভৌমিক, কিশোরগঞ্জ সনাকের ইয়েস আহবায়ক ম.ম জুয়েল ও সদস্য প্রফেসর আব্দুল গনি।

ক্যাম্পেইনের মূল আলোচনা পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন টিআইবি’র সিএফজি ইউনিটের সহকারী কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মো. নেওয়াজুল মওলা।

টিআইবি প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উর্দ্ধোতন কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মো. আতিকুর রহমান।

মূল অলোচনা উপস্থাপনের পর মুক্ত আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণকারীগণ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকবেলায় স্থানীয়ভাবে তাদের করণীয় বিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উত্থাপন করেন।

এপর্বে চারটি বিষয়ের উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। এগুলো হলো:

১. জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় যেসকল সরকারি দপ্তর নীতি নির্ধারণে দায়িত্ব পালন করছে সেই সকল নীতি নির্ধারক কর্তৃপক্ষের সাথে টিআইবি স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে কাজ জোরদার করতে হবে।

২. জলবায়ু অর্থায়নে ও তহবিল ব্যবহারে স্বচ্ছতা নিশ্চিতকল্পে সকলকে কাজ করতে হবে। এক্ষত্রে সুশাসন ও জবাবদিহিতার কোন বিকল্প নেই।

৩. জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী মূলত শিল্পোন্নত দেশসমূহ। তথাপিও এশিয়ার অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশ দায়ী তবে তা নগন্য। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তনে ঝুকিপূর্ণ দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশ অন্যতম।

৪. রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মত আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত থেকে সরকারকে ফিরে আসতে টিআইবিকে অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহবান জানানো হয়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর