কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে করোনা শনাক্ত বেড়ে ২৬৭৬, সুস্থ বেড়ে ২৪৯৫, তিন উপজেলা করোনাশূণ্য


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:২৬ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে প্রকাশিত রিপোর্টে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ৭ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এতে করে জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৬৭৬ জনের করোনা শনাক্ত হলো।

অন্যদিকে নতুন করে জেলায় মোট ১৬ জন করোনামুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৪৯৫। এছাড়া এই ২৪ ঘন্টায়ও জেলায় করোনা আক্রান্ত নতুন কোন মৃত্যু নেই। ফলে মোট মৃত্যু ৪৬ জন অপরিবর্তিত রয়েছে।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ৭ জনের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা। কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় মোট ৪ জন নতুন শনাক্ত হয়েছেন।

এছাড়া বাকি ৩ জনের মধ্যে বাজিতপুর উপজেলায় ১ জন এবং ভৈরব উপজেলায় ২ জন নতুন শনাক্ত হয়েছেন।

এই ২৪ ঘন্টায় জেলার করোনা ডেডিকেটেড কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করে ৭ জন ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া ৫ জন ছাড়পত্র পেয়েছেন।

বর্তমানে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ও সন্দেহজনক মোট ৩২ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে পাঁচজন আইসিইউ’তে ভর্তি রয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া ১৬ জনের মধ্যে ৫ জন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার। এছাড়া বাকি ১১ জনের মধ্যে কটিয়াদী উপজেলার ১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ২ জন, ভৈরব উপজেলার ৬ জন এবং নিকলী ‍উপজেলার ২ জন রয়েছেন।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) ও সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) জেলায় সংগৃহীত ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে এই ৭ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে ৮৪ জনের নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া পুরাতন পজেটিভ তিনজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) নতুন ৭ জনের করোনা পজেটিভ আসায় জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২৬৭৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ২৪৯৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া করোনার ছোবলে এই সময়ে ঝরে গেছে ৪৬টি মূল্যবাণ প্রাণ।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৫ জন। যা গতদিনের চেয়ে ৯ জন কম। তাদের মধ্যে ১০ জন হাসপাতালে এবং বাকি ১২৫ জন নিজ নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

এছাড়া অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ১ জন করোনা পজেটিভ এবং ২১ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, প্রকাশিত ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ৭ জনের পজেটিভ ও ৮৪ জনের নেগেটিভ এসেছে।

এছাড়া পুরাতন পজেটিভ তিনজনের আবারও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

ফলে মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ২৬৭৬ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে মোট সংক্রমণ, মৃত্যু, সুস্থ ও আক্রান্তসহ সব সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

সর্বমোট ৯৩১ জন শনাক্ত, সর্বমোট ৮৫১ জন সুস্থ, সর্বমোট ১৫ জনের মৃত্যু ও সর্বমোট ৬৫ জন বর্তমানে আক্রান্ত নিয়ে এই চার সূচকেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৯৩১ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৬৮ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১৩৭ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১০৭ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৪৫ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৬১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১২৫ জন, ভৈরব উপজেলায় ৬৩০ জন, নিকলী উপজেলায় ৫১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২২৭ জন, ইটনা উপজেলায় ৩৩ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৪২ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১৯ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ৪৬ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১৫ জন, হোসেনপুর উপজেলার ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ২ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন, ভৈরব উপজেলার ১৪ জন, নিকলী উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ২ জন, ইটনা উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৫ জন। উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৬৫ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৩ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৩ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ৫ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১৩ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৩ জন, ভৈরব উপজেলায় ২৮ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৯ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৫ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার নিকলী, ইটনা ও মিঠামইন এই তিন উপজেলায় বর্তমানে করোনা আক্রান্ত কোন রোগী নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর