কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বুধবার কিশোরগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চলের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী


 স্টাফ রিপোর্টার | ২ এপ্রিল ২০১৯, মঙ্গলবার, ১:৪৮ | অর্থ-বাণিজ্য 


বুধবার (৩ এপ্রিল) কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত কিশোরগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল (কেইজেড) উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকাল ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি কিশোরগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল (কেইজেড)  এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত শিল্প স্থাপনের উপযোগী অর্থনৈতিক অঞ্চল আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন, নতুন অর্থনৈতিক অঞ্চলের উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, অর্থনৈতিক অঞ্চলে স্থাপিত শিল্প প্রতিষ্ঠানের বাণিজ্যিক উৎপাদনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন এবং নতুন শিল্প প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন সংক্রান্ত বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে যুক্ত হবেন।

এতে জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী ছাড়াও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী নেতা, দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারী, উদ্যোক্তা ও কর্মকর্তারা অংশ নেবেন।

দেশকে শিল্পায়নে এগিয়ে নিতে সরকারের মহাপরিকল্পনা অনুযায়ী অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে উন্নয়নের কার্যক্রম চলছে। এর অংশ হিসেবে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি নিটল-নিলয় গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান কিশোরগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল (কেইজেড) কে চূড়ান্ত লাইসেন্স দিয়েছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ-বেজা।

পাকুন্দিয়া উপজেলায় পুলেরঘাটে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের দুই পাশে ৯১ দশমিক ৬৩ একর জমির উপর স্থাপিত এই অর্থনৈতিক অঞ্চলটি দেশের নবম বেসরকারি অর্থনৈতিক অঞ্চল।

এর আগে ২০১৭ সালের ৩ জুলাই বেজা কিশোরগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল (কেইজেড) কে প্রি-কোয়ালিফিকেশন লাইসেন্স দেয়। সব শর্ত পূরণ করায় গত ১৮ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত সনদপত্র (কোয়ালিফিকেশন লাইসেন্স) দেয়া হয়।

নতুন এই অর্থনৈতিক অঞ্চলটিতে ইতোমধ্যে ভারতের টাটা মটরসের সঙ্গে যৌথভাবে মোটরযান নির্মাণের কারখানা স্থাপনের কাজে হাত দিয়েছে বাংলাদেশি নিটল-নিলয় গ্রুপ। ভারতের আরেকটি স্টিল প্রস্তুতকারী কোম্পানি এখানে বিনিয়োগের জন্য আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

এছাড়া এখানে ইলেকট্রিক গাড়ি, এগ্রো বেইজড ফুড অ্যান্ড বেভারেজ, গার্মেন্টস, টেক্সটাইল, তথ্য প্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগসহ অন্যান্য খাতে বিনিয়োগের কার্যক্রম এগিয়ে চলছে বলে জানিয়েছেন কিশোরগঞ্জ ইকনোমিক জোন কর্তৃপক্ষ।

সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়িত হলে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এখানে পাঁচ হাজার মানুষের প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান ও ২০ হাজার মানুষের পরোক্ষ কর্মসংস্থান হবে বলে আশা করছেন তারা।

এ সংক্রান্ত পূর্ববর্তী প্রতিবেদন: গাড়ি নির্মাণে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জের প্রথম অর্থনৈতিক অঞ্চল, নিয়োগ দেয়া হবে ২৫ হাজার জনবল

চূড়ান্ত লাইসেন্স পেল কিশোরগঞ্জ ইকনোমিক জোন, গাড়ি নির্মাণ করবে টাটা




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর