কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


বিএফএফ-সমকাল বিজ্ঞান বিতর্কে কিশোরগঞ্জে সেরা দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয়


 স্টাফ রিপোর্টার | ৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৮:৫২ | রকমারি 


‘বিতর্ক মানে যুক্তি, বিজ্ঞানে মুক্তি’ এই স্লোগান নিয়ে বিএফএফ-সমকাল আয়োজিত স্কুল পর্যায়ের বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতা-২০২১ এর অনুষ্ঠান হয়ে গেল কিশোরগঞ্জে। বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) শহরের এস.ভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এই বির্তক প্রতিযোগতা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতায় জেলা সদরের ৬টি, বাজিতপুর উপজেলার ১টি ও ভৈরব উপজেলার ১টি বিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে।

১ম পর্ব থেকে শুরু করে চূড়ান্ত পর্ব পর্যন্ত বিভিন্ন দলের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্য দিয়ে চূড়ান্ত পর্বে উঠে আসে কিশোরগঞ্জ এস.ভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং বাজিতপুর উপজেলার দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয় দল।

বিচারকদের চুলচেরা বিশ্লেষণ ও পর্যবেক্ষণে খুব কম নম্বরের ব্যবধানে চূড়ান্ত পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়ে এবার শিরোপা ছিনিয়ে নেয় জেলা শহরের বাইরের দল বাজিতপুর উপজেলার দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয় দল। রানার-আপ হয় কিশোরগঞ্জ এস.ভি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় দল।

চূড়ান্ত পর্বের বিষয় ছিল প্রযুক্তি নির্ভরতা আমাদের মানবিক মূল্যবোধ হ্রাস করে। বিষয়ের পক্ষে ছিল এস.ভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং বিপক্ষে ছিল দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয় দল।

চূড়ান্ত পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতায় মডারেটর এর দায়িত্ব পালন করেন গুরুদয়াল সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক মো. নজরুল ইসলাম পালোয়ার।

বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন লেখক ও মুক্তিযুদ্ধের গবেষক জাহাঙ্গীর আলম জাহান, আবৃত্তি শিল্পী ম ম জুয়েল এবং শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. আবদুল ওয়াহাব বাদল।

সমকালের নিজস্ব প্রতিবেদক সাইফুল হক মোল্লা দুলুর সভাপতিত্বে বিতর্ক শেষে চ্যাম্পিয়ান ও রানার-আপ দলসহ অংশগ্রহণকারী দলের মধ্যে সার্টিফিকেট ও ক্রেস্ট বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম।

এ সময় বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম আত্মজিজ্ঞাসায় যুক্তিনির্ভর আধুনিক ও বিজ্ঞানমনস্ক প্রজন্ম তৈরি করার ক্ষেত্রে বিশ্লে¬ষণধর্মী বির্তক অনুষ্ঠানের গুরুত্ব অপরিসীম বলে মত প্রকাশ করেন। এছ্ড়াাও জীবন ও জগৎকে সঠিকভাবে উন্মোচন কারার জন্যও প্রতিটি মানুষকে বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে উঠতে হবে।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, নতুন প্রজন্মের মধ্যে বিজ্ঞানমনস্কতা তৈরির জন্য এ ধরনের বিতর্ক প্রতিযোগিতার গুরুত্ব অপরিসীম। তিনি নতুন প্রজন্মকে সকল প্রকার কূপমুন্ডতা ও ধর্মান্ধতা থেকে বের করে আনার ক্ষেত্রে এ ধরনের বিজ্ঞান বিতর্কের গুরুত্ব অনেক বেশি বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

বিচারক জাহাঙ্গীর আলম জাহান বলেন, জঙ্গিবাদের বিষবৃক্ষকে উপড়ে ফেলার জন্য বিজ্ঞানভিত্তিক ও যুক্তিনির্ভর সমাজ গঠনের ক্ষেত্রে এ জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা সবিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে উল্লেখ করে সকলকে স্ব-স্ব অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

ম.ম. জুয়েল বলেন, বিজ্ঞান চর্চার বিকল্প নেই। বর্তমান প্রযুক্তির এই যুগে বিজ্ঞানের কল্যাণে সমাজ থেকে ধর্মান্ধতা দূর হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশকে আধুনিক চিন্তা-চেতনায় এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

সভাপতির বক্তব্যে সাইফুল হক মোল্লা দুলু বলেন সমকাল সব সময়ই প্রগতিশীলতার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। ‘বিতর্ক মানে যুক্তি, বিজ্ঞানে মুক্তি’ শীর্ষক এই বিতর্ক প্রতিযোগিতাও বিএফএফ-দৈনিক সমকালের প্রগতিশীল চিন্তারই পরিচায়ক। বিএফএফকে তিনি এ ধরনের শুভ উদ্যোগের অংশীদার হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গুরুদয়াল সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক মো. নজরুল ইসলাম পালোয়ান, নারীনেত্রী কোহিনুর আফজাল, অধ্যাপক বদরুল হুদা সোহেল, ডা. হোসনা বেগম, এস.ভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহনাজ কবীর, দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবদুল কাইয়ূম, সুহৃদের সাধারণ সম্পাদক আসলামুল হক আসলাম,  সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম, মো. মোমেন ভূঁইয়া প্রমুখ।

এ সময় সুহৃদ সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রিগ্যান, বর্ষা, মাইশা, তাইফা, পারমিতা ঘোষ, রুমা, নাইম প্রমুখ।

চুড়ান্ত পর্বে বিজয়ী দলের নাম ঘোষণার আগে সমকাল সুহৃদ সমাবেশের সহ-সভাপতি অধ্যাপক বদরুল হুদা ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি জেলার ৮টি বিদ্যালয় প্রতিযোগিতায় আসায় সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

সবশেষে চুড়ান্ত পর্বের বিচারে দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয়, বাজিতপুর চ্যাম্পিয়ান ও কিশোরগঞ্জ এস.ভি সরকারি বালকা উচ্চ বিদ্যালয় রানার্স-আপ ঘোষণা করার সাথে সাথে পুরো অডিটোরিয়াম ব্যাপক করতালিতে মুখরিত হয়ে ওঠে।

শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক হন দিলালপুর আঃ করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের লামিয়া আক্তার ইমু।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর