কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


ভৈরবের ৭ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৬ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা



 আফসার হোসেন তূর্জা, ভৈরব | ২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৪২ | ভৈরব 



কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোট ৪৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল।

এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনে মোট ৭৮ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) পদে মোট ২৪৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

মনোনয়ন পত্র জমাদানকারী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে বেশিরভাগ প্রার্থী বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

দিনব্যাপী প্রার্থীগণ তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দেন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমাদানের সময় নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। নৌকার সমর্থনে প্রার্থীদের পক্ষে দলে দলে নেতাকর্মীরা মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ায় অংশ নেন।

এ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী দেয়নি। তবে প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

ভৈরব উপজেলার ৭ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে সাদেকপুর ইউনিয়ন থেকে মো. সাফায়েত উল্লাহ, আগানগর ইউনিয়ন থেকে মো. হুমায়ুন কবির, শিমুলকান্দি ইউনিয়ন থেকে মো. মিজানুর রহমান, গজারিয়া ইউনিয়ন থেকে ফরিদ উদ্দিন খান, কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়ন থেকে মো. ফারুক মিয়া, শিবপুর ইউনিয়ন থেকে মো. শফিকুল ইসলাম এবং শ্রীনগর ইউনিয়ন থেকে মো. আবুল বাশার মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

এ সময় তাদের সাথে কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা সোলায়মান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর, উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক জাহাঙ্গীর, আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলামসহ অসংখ্য নেতাকর্মী এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পক্ষে সমর্থকরা দলে দলে উপস্থিত ছিলেন।

চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমাদানকারীদের মধ্যে রয়েছেন সাদেকপুর ইউনিয়নে মো. তোফাজ্জল হক।

আগানগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন সেলিম আহমেদ, মো. হুমায়ুন কবীর, মো. মুসলিম মিয়া, মো. লায়েছ উদ্দিন, তাদির ইসলাম, মোহাম্মদ আবুল বাসার, মো. শফিকুল ইসলাম ও খায়রুল আলম।

শিমুলকান্দি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন শামিম মিয়া, আক্তার হোসেন মিয়া, মো. বাবুল মিয়া ও আবদুল আজিজ।

গজারিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন মো. নবী হোসেন সেন্টু, জাহিদুল ইসলাম রাজু, এ.এস শাহরিয়ার, শাহাদাৎ হোসেন, মো. বশির আলম, কাজী নুরুল আলম, মো. নুরুল আলম সোহেল, সায়েম মিয়া, কাইসার আহম্মেদ ভূইয়া ও আমিনুল ইসলাম।

কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন মুহম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, মো. হারুন অর রশিদ, লিটন মিয়া, ফজলুল কবির, মো. জসিমউদদীন ভূইয়া ও কামাল খান।

শিবপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন মো. দ্বীন ইসলাম, মাসুদ রানা, হাসান, সাহিদ মিয়া, মো. ছালাউদ্দিন, রাসেল রহমান ও শ্রীনগর ইউনিয়ন থেকে মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ ভূইয়া, মোশারফ হোসেন হেলিম, মো. কফিলউদ্দিন ও মো. হেলাল উদ্দিন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার প্রলয় কুমার সাহা বলেন, ২৫ নভেম্বর ছিলো মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। ২৯ নভেম্বর উপজেলা পরিষদ বঙ্গবন্ধু হলরুম মিলনায়তনে সকাল ১০টা থেকে প্রার্থী যাচাই-বাছাইয়ের দিনব্যাপী কার্যক্রম চলবে।

আগামী ৬ ডিসেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। ৭ ডিসেম্বর প্রার্থীদের মার্কা প্রদান করা হবে এবং আগামী ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ভৈরবে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় সকল কার্যক্রম সম্পন্ন হবে।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর