কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার আগেই চলে গেলো রূপক



 আফসার হোসেন তূর্জা, ভৈরব | ৭ নভেম্বর ২০২১, রবিবার, ১১:১১ | ভৈরব 



কাজী মনিরুজ্জামান রুপক (১৭) কিশোরগঞ্জের ভৈরবের কমলপুর এলাকার ব্যবসায়ী কাজী মো. মানিক মিয়ার ছেলে। স্থানীয় কমলপুর জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবসা শিক্ষা বিভাগের ছাত্র হিসেবে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিলো তার।

কিন্তু পরীক্ষার মাত্র এক সপ্তাহ আগে ঘটলো মর্মন্তুদ ঘটনাটি। রোববার (৭ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে কমলপুর লোকাল বাসস্ট্যান্ড এলাকার কাজী বাড়ির নিজের শয়ন কক্ষ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় কাজী মনিরুজ্জামান রুপক এর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তিন ভাইবোনের মধ্য সবার ছোট ছিল রুপক। পড়াশোনার পাশাপাশি পিতার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে বসতো।

রোববার (৭ নভেম্বর) সকালে ঘুম থেকে উঠে সে নিজ শয়নকক্ষ থেকে আর বের হয়নি। পরিবারের সদস্যরা ভেবেছিলেন, সে ঘুমাচ্ছে।

বিকালেও তাকে শয়নকক্ষ থেকে বের হতে না দেখে পরিবারের সদস্যরা কক্ষের জানালা ভেঙে ফেলেন। এ সময় তারা রূপককে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখেন।

দ্রুত তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রুপকের বড় ভাই রুপম বলেন, ‘আমার ছোট ভাই কিছুটা লাজুক টাইপের ছিল। এবছর সে এসএসসি পরীক্ষার্থী দিতো। তবে ছাত্র হিসেবে তেমন ভালো ছিল না।

সে ভেবেছিল এবছর সরকার অটোপাস দেবে। কিন্তু আগামী ১৪ তারিখ তিন বিষয়ে এসএসসি পরীক্ষা হবে শুনে সে চিন্তায় ছিল।

নিজের মেধা নিয়ে সে পাস করতে পারবে কি-না, ফেল করলে লোকজনে কী বলবে- সবসময় এসব চিন্তা করতো। সেসব চিন্তা থেকেই হয়তো সে শেষ পর্যন্ত আত্মহত্যা করে বসেছে।’

ভৈরব থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তারিকুল ইসলাম বলেন, পরিবারের ইচ্ছা অনুযায়ী ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হবে।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর